এমন এক গ্রাম যেখানে সকলের আছে নিজস্ব বিমান!

ভারতবর্ষে গ্রামেগঞ্জে মানুষেরা সাইকেল, বাইক নিদেনপক্ষে বড় গাড়ি করে যাতায়াত করে।তবে এমন একটি গ্রাম রয়েছে এই পৃথিবীর বুকে যেখানে লোকেরা গাড়ির পরিবর্তে ব্যবহার করে বিমান। এই গ্রামে বিমান পরিভ্রমণ এতটাই সহজ যে বাসিন্দারা নিজেদের কাজের জন্য গাড়ি অথবা বাইক ব্যবহার করে না তারা প্রত্যেক দিনের কাজের জন্য ব্যবহার করে বিমান। লোকেরা যারা মোটামুটি পৃথিবী ঘুরতে ভালোবাসে তারা জেনে থাকবেন এই রকম একটি গ্রামের কথা।

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার স্টেটে অবস্থিত এই স্পুক ক্রিক গ্রামের মানুষদের প্রত্যেকের বাড়িতে নিজস্ব প্লেন রয়েছে। যারা প্রতিটি কাজের জন্য এই প্লেন ব্যবহার করে।বিমানে করে যাতায়াত করলে কয়েক মিনিটের মধ্যে কাজটি সেরে নিয়ে তারা বাড়ি ফিরতে পারে।

express.com উইকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, এই গ্রামে বাস করে 50 হাজারের মতো মানুষ। গ্রামে রয়েছে এক হাজারেরও বেশি বাড়ি। গ্রামের প্রত্যেকটি বাড়ির সাধারণ বৈশিষ্ট্য বলতে গেলে, তাদের বাড়ির সামনে গ্যারেজ এর পরিবর্তে রয়েছে ব্যক্তিগত হ্যাঙ্গার। যে সমস্ত জায়গায় বিমান অথবা সেই সমস্ত জিনিসপত্র পার্ক করা হয় তাকে বলা হয় হাঙ্গার। এই গ্রামের একটি রানবে রয়েছে যা থেকে সমস্ত চাটার্ড ফ্লাইট গুলো নিচে নামে।

আসল কথা হলো এখানকার বেশিরভাগ লোক পেশায় পাইলট। বেশিরভাগ লোক পাইলট হবার কারণে এই গ্রামের প্রত্যেকটি ঘরের মানুষ বিমান চালাতে পারে এখানকার আদি বাসিন্দা বিমান এত পছন্দ করে যে, প্রত্যেক শনিবারই তাদের গ্রামের রানওয়েতে তারা জড়ো হয় সেখানকার বাসিন্দারা এবং একত্রে স্থানীয় বিমানবন্দরে যায়। একসাথে তারা প্রাতরাশ করেন এবং প্রত্যেক শনিবার কে তারা গাগল নামে ডাকে।