7 মাসের অন্তঃসত্ত্বা, বাড়ি ফেরার তাগিদে 12 ঘন্টা হেঁটে পাড় হলেন রাস্তা

দেশের এখন অনেক ছবি এমন আছে যা আমাদের চোখের সামনে ভেসে উঠলে হয়ত চোখের জল অজান্তেই বেরিয়ে পরবে। সেটা শ্রমিকদের শশ্মান থেকে কলা কুড়িয়ে খাওয়া হোক বা প্রসূতি মহিলার টানা ১২ ঘন্টা পায়ে হাটা পথ। সব কিছুই কষ্টকর। অনেকের শুনে বিশ্বাস না হতেই পারে, কিন্তু এটাই সত্যি। লক ডাউনের জেড়ে বন্ধ সব ধরনের যান চলাচল। তাই বাধ্য হয়েই পায়ে হাটা প্তহ বেছে নিতে হল ৭ মাসের অন্তঃ সত্ত্বাকে। ভাবা যায় ১২ ঘণ্টা পথ হেটে পার হয়েছে এই ৩২ বছরের মহিলা। মোট ৪৮০ কিমি পথ। তার যাত্রা শুরু হয়েছিল মহারাষ্ট্রের নবি মুম্বাই থেকে মহারাষ্ট্রের বুলধানা গ্রাম। তারা গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭ টায় হাটা শুরু করে, আর তারপরেই আজ সকালে এসে পৌছায় তাদের গন্তব্যে।

তাদের একটা দল, তারা কাজের সূত্রেই মূম্বাইয়ের সেই জায়গায় গিয়েছিল, কিন্তু এখন তারা জানিয়েছে তাদের জন্য আর সেখানে নেই কোনো খাবারে ব্যবস্থা, তাই সেখানে থেকে তাদের কোনো লাভ নেই। তাই তাদের এবার যেভাবেই হোক ফিরতে হবে। সেই অন্তঃসত্ত্বা মহিলার নাম নিকিতা, তার জিনিসপত্র দলের এক যুবক বয়ে নিয়ে আসছিল। নিকিতা ছাড়াও আছে সেই দলে বাচ্চা, ও আরেক মহিলা। সে তার বাচ্চাকে কোলে নিয়ে হেটে এসেছে এতো কিমি পথ। নিকিতা জানিয়েছেন।

মাঝখানে একটু বসে বিশ্রাম নেই, আর তার পরেই আবার হাটা। তারা কিছু খাবার ও কিছু টাকা নিয়ে বেড়িয়ে পড়েছে বাড়ির উদ্দেশ্যে।এদিকে তারাই শুধু নয়, মুম্বাইয়ে কাজ করে আরও কিছু পরিযায়ী শ্রমিক যারা তাদের গ্রাম বিহারের দ্বারভাঙ্গাতে পৌছাবে। তাদের লক্ষ্য আরও দূর কারণ তাদের পার হতে হবে ২০০০ কিমি পথ, ভাবলেই ভয় লাগে। এর জন্য তারা সাইকেল নিয়ে বেরিয়েছে মুম্বাই থেকে। তাদের জিজ্ঞাসা করলে তারা জানায়, আসলে তাদের সেখানে খাবারের খুব সমস্যা , আর সেখানে থেকে কোনো লাভই নেই। তাই তারা এখন সাইকেল নিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে পড়েছে।।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন