কঙ্গনাকে Y ক্যাটাগরি নিরাপত্তা দেওয়া হলো কেন? প্রশ্ন তুললেন টিএমসি সাংসদ মহুয়া মৈত্র

সম্প্রতি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত কে ওয়াই স্তরের নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে কেন্দ্রে তরফ থেকে। যে নিরাপত্তা ভিআইপি স্তরের হাতেগোনা কয়েকজন ব্যক্তি পেয়ে থাকেন, সেই নিরাপত্তা অভিনেত্রীকে কেন দেয়া হচ্ছে? এই নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলে মোদি সরকার কে আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। কঙ্কনাকে তিনি কটাক্ষ করে বলেন যে, বলিউডের ব্যাপারে টুইট করে সর্বদাই খবরের শিরোনামে থাকেন কঙ্গনা রানাওয়াত।কিন্তু ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা বন্দোবস্ত করে আদতে কি কেন্দ্রীয় সরকার অর্থের অপচয় করছেন না? সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনার পর থেকেই বলিউড এবং মহারাষ্ট্র পুলিশের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন অভিনেত্রী।সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের শিবসেনা জোট সরকারের সঞ্জয় রাউত এর সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন কঙ্গনা রাওয়াত।

সঞ্জয় কঙ্কনাকে মুম্বাইতে আসতে বাধা দেওয়ায় কঙ্কণার দিদি কেন্দ্রের কাছে অনুরোধ করেছিলেন যাতে তার বোনকে আলাদা করে নিরাপত্তা দেওয়া হোক কেন্দ্র থেকে।সেই অনুরোধ রেখে কেন্দ্রের তরফ থেকে কঙ্কনাকে মুম্বাইতে আসার পরেই ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেয়ার কথা বলা হয়েছে।এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কে উদ্দেশ্য করে মহুয়া টুইটারে লিখেছেন,” বলিউডে যারা টুইট করে শিরোনামে থেকে থাকেন,তাদের জন্য ওয়াই প্লাস নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

যেখানে দেশ প্রতি এক লক্ষ জনসংখ্যার পেছনে পুলিশের সংখ্যা মাত্র ১৩৮ জন আর অনুপাত এর নিরিখে মাত্র ৭১ টি দেশের মধ্যে শেষ দিক থেকে পঞ্চম স্থানে রয়েছে ভারত।সম্পদের এর থেকে ভালো অপব্যবহার হয়তো আর কিছুই হতে পারে না, তাই নয় কি মিনিস্টার হোম মিনিস্টার”?

ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি র প্রতিরক্ষা বাহিনীর ১০ থেকে ১১ জন বন্দুকধারী কমান্ডার সর্বদা পাহারা দিবেন কঙ্কনাকে।এর মধ্যে দু’জন থেকে তিনজন পার্সোনাল সিকিউরিটি অফিসার সব সময় কঙ্গনাকে ঘিরে থাকবেন, এবং একজন সিকিউরিটি তার বাসস্থান এর সামনে মোতায়েন করা হবে। এই ওয়াই প্লাস স্তরের নিরাপত্তা প্রধানত পেয়ে থাকেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি শরৎ অরবিন্দ ববদে, আইন এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ।বিচার ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত হাতেগোনা কয়েকজন যে নিরাপত্তা পেয়ে থাকেন সেই নিরাপত্তা এই প্রথম কোন অভিনেত্রী র জন্য মোতায়েন করছে কেন্দ্র।