EVM হোক অথবা মোদি ভোটিং মেশিন, কাউকে ভয় পাই না আমি: বিহারে তোপ দাগলেন রাহুল

বর্তমানে বিহার দখলের লড়াইয়ে মরিয়া প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি এবং কংগ্রেস। প্রথম, দ্বিতীয় দফার ভোট পর্ব শেষ। এবার তৃতীয় তথা শেষ দফার ভোট গ্রহণ পর্ব বাকি। তার আগেই ইভিএম মেশিন নিয়ে কেন্দ্রীয় শাসক দলের প্রতি কটাক্ষ করলেন কংগ্রেস দলনেতা রাহুল গান্ধী। ভোট প্রচার পর্বে এক জনসমাবেশে অংশগ্রহণ করে কংগ্রেস দলনেতা মন্তব্য করেছেন, ইভিএম মেশিন আসলে এমভিএম মেশিন। এতে মোদি সরকারের প্রভাব থাকবে।

আসলে এমভিএম মেশিন বলতে রাহুল গান্ধী ইভিএম মেশিনকে “মোদি ভোটিং মেশিন” বলে বোঝাতে চেয়েছেন। তার দাবি, বিহারের বিধানসভা ভোটে কারচুপি করতে পারে কেন্দ্রীয় শাসক দল। ইভিএম মেশিনে কারচুপি করে বিহারের দখল নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে বিজেপি, এমনটাই অভিযোগ তুলেছেন কংগ্রেসের নেতা। তবে তার দাবি, বিজেপি যতই চেষ্টা করুক না কেন, কংগ্রেস পিছু হটবে না।

কংগ্রেস দল নেতার হুঁশিয়ারি, বিজেপি যতই ইভিএম মেশিনে কারচুপি করার চেষ্টা করুক না কেন, বিহারের বিধানসভা ভোটের ফলাফল “পরিবর্তন” আনবে রাজ্যের। তার দাবি, বিহারে এবার “মহাগঠবন্ধন”ই ক্ষমতায় আসবে। কংগ্রেস কারোকে ভয় পায় না। উল্লেখ্য, ইভিএম মেশিনে কারচুপির অভিযোগ নতুন নয়। এর আগেও বহুবার রাজনৈতিক শিবির গুলি এই একই অভিযোগ তুলেছে।

কিন্তু নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে প্রত্যেকবারই সমস্ত অভিযোগ খারিজ করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের পাল্টা দাবি, “ইভিএম মেশিনে কারচুপি হয়, একথা আগে প্রমাণ করে দেখান”। সেই চ্যালেঞ্জ অবশ্য স্বীকার করতে এগিয়ে আসেননি কেউ। ভারতে ভোট পর্ব এখন তাই ইভিএম মেশিনেই সম্পন্ন করা হয়।