১৫০ বছর প’র একই দি’নে সূর্যগ্রহণ ও শনি জয়ন্তী, মা’ন’ব জী’ব’নে কি প্র’ভা’ব প’ড়’বে জেনে নিন

আজ একই সঙ্গে শনি জয়ন্তী এবং বছরের প্রথম সূর্য গ্রহণ। জৈষ্ঠ্য মাসের অমাবস্যা তিথি অর্থাৎ ১০ জুন, বৃহস্পতিবার একই সাথে পালন করা হবে শুনি জয়ন্তী এবং বছরের প্রথম সূর্য গ্রহণ। আজ জন্মগ্রহণ করেছিলেন কর্মফল দাতা শনি, আজ আবার ঘটবে আংশিক সূর্যগ্রহণ। ভারতের বেশ কিছু অংশ যেমন উত্তর-পূর্ব ভারতে জম্মু কাশ্মীরের কয়েকটি স্থান থেকে দেখা যাবে সূর্যগ্রহণ। বৃষ রাশি এবং মৃগ রাশি নক্ষত্রে এই গ্রহণ লাগতে চলেছে। প্রায় ১৪৮ বছর পর একই সঙ্গে হতে চলেছে শনি জয়ন্তী এবং সূর্য গ্রহণ।

এই গ্রহণের কেমন প্রভাব পড়বে দেখে নেওয়া যাক।

স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক: গ্রহণ কখন স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো হয় না। অনেক সময় চোখের সমস্যা দেখা দিতে পারে। গৃহকর্তার শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেহেতু কাজকর্ম এবং শারীরিক ক্ষেত্রের অধিপতি সূর্য। তাই শুনি জয়ন্তী এবং সূর্যগ্রহণ একসঙ্গে থাকার কারণে সরকারি কাজ কর্মের প্রতি অনাস্থা দেখা যাবে। নানা বিষয়ে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এই সময়।

কি করবেন: সব স্থান থেকে সূর্যগ্রহণ না দেখা দিলেও এর প্রভাব সর্বত্র লক্ষ্য করা যাবে। এই সময়ে গ্রহের ক্ষতিকারক প্রভাব এড়ানোর জন্য মন্ত্রোচ্চারণের পরামর্শ করা হয়। এই সময় দান করলে সুফল পাওয়া যায়। গ্রহণ শুরু হবার আগেই খাবার এবং পানীয়তে তুলসী পাতা রেখে দেওয়া উচিত। গ্রহণ শেষ হলে বাড়িতে গঙ্গা জল ছিটিয়ে নেবেন।

পুরাণ অনুযায়ী শনি সূর্যপুত্র ছিলেন। বাবা এবং ছেলের মধ্যে তিক্ত সম্পর্ক ছিল। অন্যদিকে বর্তমানে শনির সাড়েসাতি চলছে ধনু মকর এবং কুম্ভ রাশিতে। অন্যদিকে বকরি দশা বিচরণ করছেন শনি। এই পরিস্থিতিতে শনি চল্লিশা পাঠ করা উচিত সকলের গ্রহণের সময়। গ্রহণের পর দরিদ্রদের খাবার এবং বস্ত্র দান করলে শনির অশুভ প্রভাব কমতে পারে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সূর্যগ্রহণ তিনি রাশি, যেমন বৃষ, তুলা এবং বৃশ্চিক রাশির জন্য খুবই অশুভ। গ্রহণের সময় গাড়ি চালাবেন না। এমনকি কোন কাজের জন্য ঝুঁকি নেবেন না। এই সময়ে গর্ভবতী মহিলারা সতর্ক থাকুন।