মানুষের ভাবাবেগের কোনো দাম নেই, বিগবস হাউজে এন্ট্রি হতে চলেছে রিয়া চক্রবর্তীর

সম্প্রতি এক লক্ষ টাকা জরিমানা দিয়ে মুক্তি পেলেন রিয়া চক্রবর্তী। যদিও তার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী এখনো রয়েছেন জেলে। বিশেষ সূত্রে খবর অনুসারে,অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী যিনি কিনা মাদকচক্রের মূল কান্ডারী, তিনি খুব তাড়াতাড়ি আসতে চলেছেন বিগ বস’-এর ঘরে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,সমস্ত জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কালার্স এ শুরু হয়ে গেছে সালমান খান সঞ্চালিত বিগ বস সিজন ১৪। বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে,খুব তাড়াতাড়ি ওয়াইল্ড কার্ড নিয়ে রিয়া চক্রবর্তী পদার্পণ করতে চলেছে বিগবসের মঞ্চে। এই খবরে খুশি রিয়া চক্রবর্তীর পরিবারের সকলে।

চলতি বছরে খেলার রুলস অনেকটাই আলাদা রাখা হয়েছে। সিনিয়র প্রতিযোগিদের সন্তুষ্ট করতে পারলে তবে জুনিয়র প্রতিযোগিরা টিকে থাকতে পারবে এই শোতে। এই জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো এমনিতেই বহুল সমালোচিত একটি রিয়েলিটি শো। এমনকি যারা বিগ বস’-এর ঘরে প্রতিযোগী হিসেবে অংশগ্রহণ করে আসেন, তাদেরকে নিয়ে বহুবার সমালোচনা করা হয়। টিআরপি বাড়ানোর জন্য মাঝে মাঝেই প্রতিযোগিদের মধ্যে বিবাদ করিয়ে দেয়া হয়। এমন অনেক ঘটনা দেখানো হয়, যার ফলে উত্তরোত্তর বেড়ে যায় এই রিয়েলিটি শোয়ের টিআরপি।

সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই বলিউডের বহু প্রযোজক পরিচালক এবং অভিনেতারা সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছেন। কিন্তু যত সময় যায়, তাতো পরিস্থিতি আবার স্বাভাবিক হয়ে যায়। সম্প্রতি চিকিৎসকরা যখন বলেন যে, সুশান্তের মৃত্যু কোন খুন নয় বরং এটি আত্মহত্যা। এই কথা শোনার পর আস্তে আস্তে যেনো স্বাভাবিক হয়ে যাচ্ছে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি র অন্দরের পরিস্থিতি।

তবে রিয়া চক্রবর্তী বিগবসে প্রবেশ করলে চলতি বছরে বিগ বসের টিআরপি যে আকাশ ছুঁয়ে ফেলবে তা বলাই বাহুল্য। বিগ বসের মঞ্চে রিয়া চক্রবর্তী হয়তো আরো কয়েকটা বড়সড় বোমা ফাটাতে পারে, এমনটাই ধারণা নেটিজেনদের। তবে এই খবর সামনে আসায় প্রচন্ড ক্ষুব্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা। সকলেরই মনে হচ্ছে তাহলে প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সবকিছুই যেনো একটি নাটক ছিল। চারিদিকে জনগণ যখন বয়কটের ডাক দিচ্ছে, তার মধ্যে কিন্তু রমরমিয়ে চলছে বিগ বস। বিগবসে রিয়া চক্রবর্তীর এন্ট্রি মানে আপামর জনগণের ব্যর্থতা।