জা’য়’গা ছেড়ে দিলেন তরুণ রো’গীকে! ক’রো’না কা’লে মৃ’ত্যু’কেই বেছে নিলেন ৮৫ বছরের বৃদ্ধ

দেশে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনা সংক্রমণ।করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এ দেশের অধিকাংশ হাসপাতাল ও নার্সিহোমের অবস্থা শোচনীয়। আর সেই পরিস্থিতিতেই নজির তৈরি করলেন এর ৮৫ বছরের জাতীয় স্বয়ং সেবক সংঘ বা আরএসএস-এর সদস্য নারায়ণ দাভালকর। তিনি কম বয়সী করোনা রোগীর জন্য হাসপাতালের শয্যা ছেড়ে দিয়ে স্বেচ্ছায় বাড়ি চলে যান। কিন্তু বাড়িতে প্রয়োজনীয়  চিকিৎসা পরিষেবা দিতে না পারায় সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৮৫ বছরের নারায়ণ দাভালক। ২২ এপ্রিল তাঁর শরীরে অক্সিজেন কমে যাওয়ায় তাঁকে ভর্তি  হয়েছিল নাগপুরের ইন্দিরা গান্ধী সরকারি হাসপাতালে। শ্বাসকষ্ট থাকায় তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হয়েছিল। করোনা আক্রান্ত স্বামীকে হাসপাতালে ভর্তি করতে এসে শয্যা না পেয়ে খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছিল এক মহিলাকে। আর সেই ঘটনা দেখেই মত বদল করেন ৮৫ বছরের আরএসএস সদস্য।

চিকিৎসকদের পরামর্শের সম্পূর্ণ বিরুদ্ধে গিয়ে মহিলার স্বামীকে হাসপাতালে তাঁর শয্যাটি ছেড়ে দেন।আর তিনি বাড়িতে ফিরে যান। মহিলার স্বামী চিকিৎসার সুবিধে পেলেও প্রাণ বাঁচানো  যায়নি বৃদ্ধের। মঙ্গলবার নিজের বাড়িতেই মৃত্যু হয় তাঁর।