বিজেপি নেতা-নেত্রীদের ভিআইপি নিরাপত্তা দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার

এবার বিজেপিতে যোগ দেওয়া নতুন নেতা-নেত্রীদের দেওয়া হল ভিআইপি নিরাপত্তা। ইতিমধ্যেই যারা তৃণমূল ও অন্যান্য দল থেকে বিজেপিতে যোগ দিয়েছে, তাদের ভিআইপি সুরক্ষা দিতেই এই উদ্যোগ। গতকাল শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে এই কথা জানিয়ে দেয়া হয়েছে। প্রায় এক ডজনের মতো নেতা-নেত্রীদের দেওয়া হচ্ছে এই সুবিধা। কিন্তু স্বাভাবিক ভাবেই নিচু স্তরের ভিআইপি নিরাপত্তা পেয়েছে তারা।

কেউ কেউ ওয়াই বিভাগের নিরাপত্তা পেলেও বাকিরা সবাই পেয়েছে এক্স বিভাগের নিরাপত্তা। গতকাল যারা এই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেয়েছে তারা হলো বৈশাখী ডালমিয়া, তমলুকের বিধায়ক অশোক দিন্দা, পুরুলিয়ার বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায় , কাঁথি উত্তরের আসনের বিধায়ক বাঁশরি মাইতি ও ব্যারাকপুর, কালনা সহ আরও অনেক জায়গার বিধায়ক যারা পেল এই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা।

কিন্তু সূত্রের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, এই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়া নিয়ে এক চাপান উতোর চলছে বিজেপির অন্দরমহলে। বিজেপির একজন প্রবীণ নেতা জানিয়েছেন, আমাদের দলটা কি সিকিউরিটি এজেন্সির কাজ নিয়েছে নাকি? যাদের পাড়ার কাউন্সিলর হওয়ার ক্ষমতা নেই তারা বিজেপিতে এসে সামরিক বাহিনী নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এই ঘটনা অবশ্য নতুন নয়, এর আগেও শঙ্কুদেব পান্ডা কে দেওয়া হয়েছিল ওয়াই প্লাস সিকিউরিটি। জানিয়ে বিজেপির অন্দরমহলে শোনা গিয়েছিল গুঞ্জন। এমনকি এই সিদ্ধান্তে নারাজ ছিল দিলীপ ঘোষ স্বয়ং। পরে অবশ্য তিনি জানান কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের মনে হয়েছিল তাই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু এর জন্য আমি কোন সুপারিশ করিনি।