নাইট কার্ফু, লকডাউনের পথে একাধিক রাজ্য, আবার কঠিন সময়ের মুখোমুখি পরিযায়ী শ্রমিকেরা

ঠিক এক বছরের মাথায় ফের দেশজুড়ে দ্রুতগতিতে ছড়াচ্ছে করোনা। বর্তমান পরিস্থিতিতে নিত্যদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে। এমতাবস্থায় দেশের বেশকিছু রাজ্য ফের লকডাউনের পথে এগোচ্ছে। কোনো কোনো রাজ্যে চালু হয়ে গিয়েছে নাইট কারফিউ। পরিস্থিতি এমন ভয়াবহ হয়ে উঠছে যে শীঘ্রই দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার।

লকডাউনে বেসরকারি সংস্থা কিংবা কল কারখানায় কর্মরত মানুষেরা অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হন। করোনা স্বাস্থ্য, শিক্ষার পাশাপাশি রোজগারের উপরেও আঘাত হানে। আগেরবার লকডাউনের সময় সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। রোজগার হারানোর পাশাপাশি ভিন রাজ্য থেকে নিজের রাজ্যে ফেরার সময় প্রাণ হারিয়েছেন অনেকেই।

যারা কোনক্রমে নিজের রাজ্যে ফিরে আসতে পেরেছেন, রোজগারের অভাবে ফের নিজেদের পুরনো কর্মস্থানে ফিরে গিয়েছেন। তবে এবার আর পরিবার নিয়ে যাননি তারা। পরিযায়ী শ্রমিকরা একা একাই পাড়ি দিয়েছেন ভিন রাজ্যের পথে। এখন যদি ফের লকডাউন হয় তাহলে এক বছর আগের পুরনো সেই ভয়াবহ স্মৃতি ফের আরেকবার বাস্তব হয়ে উঠবে বলেই আশঙ্কা করছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।

বিশিষ্ট সূত্রে খবর, প্রথম দফার লকডাউনের পর পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে পুরুষ শ্রমিক যারা তারা ভিন রাজ্যে নিজেদের কর্মসংস্থানের জায়গায় ফিরেছেন বেশি সংখ্যায়। পুরুষদের তুলনায় মহিলারা লকডাউনের পর নিজেদের কাজের জায়গায় কম ফিরছেন। করোনার জন্য মহিলারা এখন আর ভিন রাজ্যে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করছেন না। তবে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে পরিস্থিতি কোন দিকে এগোবে সে সম্পর্কে এখনই কিছু জানাতে পারছেন না বিশেষজ্ঞরা।