ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে মহাসাগরে টহল দেবে জার্মান যুদ্ধজাহাজ, ঘুম উড়ছে চিনের

ফাইল ছবি

লাদাখের দুর্গম পাহাড়ি এলাকার পাশাপাশি সমুদ্রপথেও ভারতের সঙ্গে শত্রুতা জারি রেখেছে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির সদস্যরা। চীনের আগ্রাসী দৃষ্টি পড়েছে ভারত মহাসাগরের উপর। প্রায়শই পিপলস লিবারেশন আর্মির নৌ সদস্যদের মহাসাগরের বুকে টহল দিতে দেখা যাচ্ছে। এভাবেই ভারত মহাসাগরে নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখার চেষ্টা করছে চীন। চীনকে প্রতিহত করতে তাই এবার আসরে নামছে জার্মানি।

মহাসাগরের বুকে চীনের আধিপত্য খর্ব করতে ভারত মহাসাগরে টহল দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল জার্মানির নৌ সেনাবাহিনী। ভারত মহাসাগরের আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন ও অবাধ যাতাযাত ব্যবস্থা বজায় রাখতে শীঘ্রই মহাসাগরের বুকে টহল দেবে জার্মানির যুদ্ধজাহাজ। উল্লেখ্য, জলপথে চীনকে ঠেকাতে জার্মানির কাছে আবেদন করেছিল ভারত। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মান নৌ সেনা বাহিনী।

জার্মানির প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যানেগ্রেট ক্রাম্প-ক্যারেনবাওয়ার জানালেন, ভারতের সঙ্গে সম্মিলিতভাবে জার্মান নৌবাহিনীর ডেস্ট্রয়ার ও ফ্রিগেট ভারত মহাসাগরের বুকে টহল দেবে। দক্ষিণ চীন সাগরের মতো ভারত মহাসাগর এর উপরেও চীনের আধিপত্য বিস্তারের মনোভাব খর্ব করতেই এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, চীনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে কোয়াডের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলি সঙ্ঘবদ্ধ হয়েছে।

কোয়াডের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলির মধ্যে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া, আমেরিকা, ভারত এবং জাপান। চীন বিরোধী রাষ্ট্র হিসেবে পঞ্চম রাষ্ট্র জার্মানি এবার এই জোটে আবদ্ধ হতে চলেছে। জার্মানির প্রতিরক্ষা দপ্তরের দাবি, ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা আন্তর্জাতিক ব্যবসা বাণিজ্যের দৃষ্টিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সম্প্রতি, ভারতের তরফ থেকে ওই এলাকায় জার্মান যুদ্ধজাহাজ মোতায়েনের আবেদন জানানো হয়েছে। ওই এলাকার শান্তি বজায় রাখতে সব রকম সাহায্য করবে জার্মানি।