রাজবংশীদের তৃণমূলের অ’ত্যা’চা’র ব’ন্ধ না হলে আছি আমরা! কেলও-র হু’ম’কি পো’স্টা’র চোপড়ায়

কোচবিহার ও জলপাইগুড়ির পর এবার নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী কেএলও এর নজরে উত্তর দিনাজপুর। উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া ব্লকের মাঝিয়ালি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকায় নিষিদ্ধ জঙ্গীগোষ্ঠী কেএলও-র হুমকি পোস্টারের দেখা মিলেছে। যা কার্যত স্থানীয় বাসিন্দাদের আতঙ্ক বৃদ্ধি করেছে। এই পোস্টারে রাজ্য শাসকদলের বিরুদ্ধে কামতাপুরী ভাষায় লেখা রয়েছে হুমকির বার্তা।

সেখানে হুমকি দিয়ে লেখা রয়েছে, চোপড়া ভূমিপুত্র রাজবংশীদের উপর TMC এর অত্যাচার বন্ধ না হলে কেএলও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। রবিবার সকালে গ্রামের বাসস্ট্যান্ড ও লাগোয়া বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারগুলি দেখতে পান এলাকার মানুষ। সাদা কাগজের উপর কম্পিউটারে প্রিন্ট করে ছাপানো হয়েছে ওই পোস্টার। ওই এলাকায় নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠীর উপস্থিতি রয়েছে এ কথা জেনে এলাকার মানুষ আতঙ্কিত হয়ে রয়েছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কেএলওর তরফ থেকে সম্প্রতি একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থপ্রতীম রায় ও প্রাক্তন বনমন্ত্রী বিনয়কৃষ্ণ বর্মনকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়। সেই হুমকি বিবৃতিতে উল্লেখ করা ছিল যে, ভোটের পর কোচ জনজাতির মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে রাজ্যের শাসক দল। কলকাতায় ফিরে গিয়ে তারা যা করেছেন তার জন্য তাদের চরম ফল পেতে হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে ওই পোস্টারে।

কলকাতায় এসে আলাদা উত্তরবঙ্গ রাজ্যের দাবির বিরোধিতা করেছিলেন পার্থপ্রতিম রায়। সেই জন্যই কার্যত এই হুমকির বার্তা দেওয়া হয়েছে বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের। কেএলও প্রধান জীবন সিংহের একটি ভিডিয়োও প্রকাশ করা হয়েছে জঙ্গী গোষ্ঠীর তরফ থেকে। উত্তরপূর্ব বা মায়ানমারের কোনও গোপন ডেরা থেকেই ওই ভিডিওটি তোলা হয়েছে বলে অনুমান পুলিশের। ভিডিওতে জঙ্গী গোষ্ঠীর প্রধানকে একেবারে সুস্থ দেখা গিয়েছে।