বাংলায় ভিন্ন ছবি, একদিকে ভারী বৃষ্টির ভ্রুকুটি, অন্যদিকে ধীরে ধীরে বিদায় নিচ্ছে বর্ষা !

আজ ফের সকাল থেকে কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন, আর তার ফলেই উষ্ণতা বৃদ্ধি ও আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি। আজ দক্ষিণবঙ্গের অনেক জায়গায় গুমোট আকাশ তেমন কোনো বৃষ্টি হয় নি । তবে উত্তরবঙ্গের অনেক জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে।এই বৃষ্টি এখন একটানা চলবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। আগামীকাল শুক্রবার ও শনিবার এই বৃষ্টি চলবে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায়। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায় এই বৃষ্টি হবে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং, কালিংপং সব জায়গায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

তবে এর মধ্যে ভালো খবর এটাই যে বর্ষার ফিরে যাওয়ার সময় এসে গেছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর বর্ষা বিদায় নেবে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে পশ্চিম রাজস্থানের অনেক জায়গায় বর্ষা বিদায় নিতে শুরু করেছে। আসলে এখন উত্তরবঙ্গের ওপরে বেশী বৃষ্টির কারণ একটাই মৌসুমী অক্ষরেখার অবস্হান, এখন হিমালয়ের পাদদেশে অবস্হান করছে এই মৌসুমী অক্ষরেখা।

এই মৌসুমী অক্ষরেখার অবস্হানের কারণেই উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানা গেছে, সাথে পাহাড়ে বৃষ্টির পরিমাণ বেশী হবে বলেও জানা গেছে। সেই কারণেই ধ্বস নামার সম্ভাবনা আছে। এদিকে নদীর জলের স্তর অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে বলেও জানা গেছে, ফের বন্যা পরিস্থিতি তৈরী হওয়ার একটা আশঙ্কা আছে, তাই ইতিমধ্যে জারি করা হয়েছে কমলা সতর্কতা। দক্ষিণ বঙ্গের ওপরে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই,তবে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।।