সিসিটিভি ফুটেজ ভাইরাল: ঝগড়া করতে করতেই মাকে থাপ্পড় ছেলের, মুহূর্তেই মৃত্যু

সুদূর অতীতে যে একসময় বাবা-মায়েরা ছেলেমেয়েদের ছেড়ে দিয়ে চলে যেতেন সন্ন্যাস ধর্ম গ্রহণ করতে, তার কিছুটা হলেও যথাযথ কারণ ছিল। বর্তমানে আমরা একান্ন বর্তী পরিবার থেকে হয়ে পড়েছি ছোট ছোট পরিবারে।ছেলে অথবা মেয়ের বিবাহের পর তাকে আলাদা করে দেওয়াটাই সবথেকে শ্রেয় বলে মনে করছেন বাবা মায়েরা। জেনারেশন গ্যাপ সবথেকে বেশি অশান্তির কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে মানুষের মধ্যে। বাবা-মায়ের সঙ্গে কোনো না কোনো কারণে মনোমালিন্য লেগেই থাকে তাদের ছেলেমেয়েদের। ঠিক এই কারনে আমাদের দেশে বৃদ্ধাশ্রম এর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

তবে সামান্য বাকবিতণ্ডার ফলে মা বাবার গায়ে হাত তোলাটা নিতান্তই গুরুতর অপরাধ হিসেবে গ্রহণ করা হয় আমাদের সমাজে। এই রকমই একটি ঘৃণ্য অপরাধের ভিডিও আমাদের সকলের সামনে উঠে এসেছে। সম্প্রতি সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয়েছে এরকম একটি ভিডিও। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির দ্বারকার বিন্দা পুর এলাকায়।

এই এলাকায় ছেলে এবং বৌমার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় একজন বৃদ্ধার। সমস্ত ঘটনাটি সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পরেছে সকলের সামনে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে, কোন একটি কারণে একে অপরের সঙ্গে বচসা তে সাথে জড়িয়ে পড়েছিলেন বৃদ্ধা এবং তার ছেলে বৌমা।কথায় কথায় হঠাৎ করে মায়ের গালে সপাটে চড় মেরে দেয় তার ছেলে। আচমকা এই ধাক্কা সামলাতে পারেনি বৃদ্ধা। সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি।যদিও সেই সময় ছেলেকে আটকানোর চেষ্টা করেছিলেন বৌমা। তবে ততক্ষণ অনেকটাই দেরি হয়ে যায়। মাটিতে লুটিয়ে পড়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে বৃদ্ধা।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাবার পর একাধারে সকলেই ছেলের এই ঘৃণ্য অপরাধের নিন্দা করেছে।মনোমালিন্য হতেই পারে তবে গায়ে হাত তোলা কোনোভাবেই উচিত হয়নি সেই ছেলের। অবিলম্বে তার শাস্তি দাবি করেছেন নেটিজেনরা।