প্রাধান্য পাবে হিন্দুত্ব! রাজ্যে এসেই ভারত সেবাশ্রম, ইস্কনে যাবেন শাহ

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে বাংলা এখন বঙ্গ বিজেপির পাখির চোখ। বাংলায় গেরুয়া পতাকা স্থাপন করতে ভোট প্রচারে স্ট্র্যাটেজি হিসেবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা দফায় দফায় বাংলা সফরে আসছেন। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুসারে আগামী ৩০-৩১ শে জানুয়ারি ফের বাংলায় আসতে চলেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এই দফায় বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার।

বিজেপির অন্দরমহল সূত্রে খবর, এই সফরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঠাকুরনগরে যেতে পারেন। সেখানে গিয়ে মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষদের সঙ্গে কথা বলতে পারেন তিনি। এরপর তিনি মায়াপুরের ইস্কন মন্দিরে যাবেন। সেখানে গিয়ে পুজো এবং আরতী করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। মায়াপুর থেকে তিনি ফিরে আসবেন কলকাতায়। এরপর বালিগঞ্জে ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘে গিয়ে সেখানকার প্রধান সন্ন্যাসীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারেন তিনি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, অমিত শাহের বাংলা সফরের দিন কয়েকের মধ্যেই বাংলায় আসবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বিজেপির অন্দরমহল সূত্রে খবর, জেপি নাড্ডার সফরে প্রধানত হিন্দুত্ববাদ অন্যতম রাজনৈতিক কর্মসূচি হিসেবে প্রাধান্য পাবে। ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে উত্তরবঙ্গ সফরে আসবেন তিনি। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

এখানেই শেষ নয়, রাজ্যের বিভিন্ন মন্দিরে গিয়ে পূজা-অর্চনার পাশাপাশি সনাতন হিন্দু ধর্মের ধারক ও বাহক, উত্তরবঙ্গের আদি নিবাসীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তিনি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা ইতিপূর্বে বাংলা সফরে এসে কালীঘাট, দক্ষিণেশ্বর এবং বোলপুরের হনুমান মন্দিরসহ রাজ্যের বিভিন্ন জনপ্রিয় মন্দিরগুলিতে পূজা দিয়েছেন। তবে শাহ এবং নাড্ডার আসন্ন সফরে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলি সফরই প্রধান রাজনৈতিক কর্মসূচি হিসেবে প্রাধান্য পাবে।