অতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক খাচ্ছেন? সাবধান! শরীর সুস্থ রাখুন এই উপায়ে

আমরা আজকাল কিছু হলেই অ্যান্টিবায়োটিক খাই, আর তার ফলে শরীর সুস্থ হলেও অনেকটা দুর্বল হয়ে যায়। আমরা জ্বর হলেই অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়া শুরু করে দেই। এটা আসলে করা উচিৎ নয়। আমাদের জ্বর অনেকসময় দেখা যায়, ঋতু পরিবর্তনের কারণেও হয়, তার জন্য না জেনে অ্যান্টিবায়োটিক খাওয়া উচিৎ নয়। প্যারাসিটামল খেলেই সেড়ে যায় জ্বর, কিন্তু না সাড়লে ডাক্তারকে দেখিয়ে পরে অ্যান্টিবায়োটিক খান।

অ্যান্টিবায়োটিক এমন একটা ঔষুধ যা মাঝপথে বন্ধ করা যায় না। আর সেটা বন্ধ করতে হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। আমরা অনেক সময় হাত না ধুয়ে খাবার খেয়ে ফেলি, এটা করা উচিত নয়। আর তারফলেই শরীরে অনেক জীবাণু প্রবেশ করে।

শরীরে কিছু হলে যেমন ফোঁড়া, বা কিছু সেই কারণে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ না খেয়ে মলম ব্যবহার করুন, এরফলে ঔষুধের থেকে বেশী উপকার পাওয়া যাবে। পেটের সমস্যা, বা গ্যাস হলে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ না খাওয়াটাই ভালো।

আমরা না জেনে অ্যান্টিবায়োটিক খাই, বিশেষ করে প্রেগন্যান্ট থাকা কালীন, ব্রেস্ট ফিডিং চলাকালীন অ্যান্টিবায়োটিক না খাওয়াই ভালো। দরকার হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে খান। কিন্তু এটাকে এড়িয়ে চলাই ভালো।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন