অভিনেতা না সাংসদ?, দুবাইয়ে আটকে থাকা ১৭১ ভারতীয়কে দেশে ফিরিয়ে আনলেন দেব

দেশজুড়ে অকষ্মাৎ লকডাউন চালু হবার পর দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়ে ছিলেন বহু মানুষ। শুধু পরিযাই শ্রমিক নয়, ঘুরতে গিয়ে বা চিকিৎসা করাতে গিয়ে আটকে পড়ে ছিলেন বহু মানুষ।লকডাউন এর তৃতীয় সপ্তাহে আস্তে আস্তে সেই সকল ব্যক্তিদের বাড়ী ফেরার ব্যবস্থা করেছিল সরকার। পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ানোর ক্ষেত্রে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছিল বলিউডের অভিনেতা সনু সুদ। সেই পথে হেঁটেছিলেন আরেক অভিনেতা দেব। তবে শুধু অভিনেতা নয় সাংসদ হিসেবে পরিচিত দেব। লকডাউন এ নেপাল এবং রাশিয়ায় আটকে পড়া বহু মানুষকে দেশে ফিরেছেন এই অভিনেতা।

এবার দুবাই আটকে পড়া ভারতীয়দের দেশে ফেরাতে উদ্যোগ হলেন সাংসদ তথা অভিনেতা দেব।রবিবার দুবাই থেকে একটি আন্তর্জাতিক বিমানে করে ১৭১ জন ভারতীয় দেশে ফিরেছেন।দুবাই আটকে পড়া দেশের মানুষ দের ফিরিয়ে আনতে কেন্দ্র এবং রাজ্যের কাছে যে অনুমতি নেয়া প্রয়োজন, সেটা তারা পাচ্ছিলেন না। অবশেষে অভিনেতা দেব এই ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করে সেই ব্যবস্থা করে দেন তাদের।জানা গেছে, দুবাই থেকে যে সকল মানুষ দেশে ফিরেছেন, তাদের মধ্যে কিছু এমন লোকজন আছেন, যারা তাদের কাজ হারিয়েছেন, আবার কিছু বয়স্ক মানুষ আছেন, কিছু অন্তঃসত্ত্বা মহিলা ও আছেন।

কিছু লোকজন আবার দুবাইতে বেড়াতে গিয়ে কিংবা অসুস্থ আত্মীয়দের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে আটকে পড়ে ছিলেন। তবে যে সকল মানুষ দুবাই থেকে ভারতবর্ষে ফিরে এসেছেন সকলে পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা নন, তাদের মধ্যে কিছু ত্রিপুরা সহ অন্যান্য রাজ্যের বাসিন্দা ও আছেন।দুবাই থেকে দেশে ফেরার খুশিতে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন,”বহুদিন বাদে দেশে ফিরে বেশ কয়েক মাস মায়ের সঙ্গে কাটাতে পারব”।নীলাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় বলে জানিয়েছেন,”প্রথমে দেশে ফিরে আমি আমার মা এবং ভাইবোনদের সঙ্গে দেখা করব, তারপর ব্যাঙ্গালুরুতে আমার স্ত্রী এবং দুই ছেলের কাছে পৌঁছে যাব”।অস্ট্রেলিয়ার আটকে পড়া আরো কিছু মানুষ দেশে ফেরার আবেদন নিয়ে অভিনেতাদেরকে টুইট করেছেন, তাদের প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দেবার চেষ্টা করেছেন দেব।