করাচি বি’স্ফো’র’ণ কা’ণ্ডে মানববোমা এই মহিলা ছিলেন প্রাণীবিদ্যায় স্নাতক, পড়াতেন স্কুলে!

মঙ্গলবার করাচি বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ভয়ানকভাবে কেঁপে উঠল বিস্ফোরণে। এই বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন তিনি চীনা নাগরিকসহ চার জন। এই গোটা হামলার দায় ইতিমধ্যেই স্বীকার করে নিয়েছেন বি এলএ।

বি এল এ একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, মানববোমা হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছিল শারি বালোচ ওরফে ব্রামশকে। একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে একটি বোরখা পড়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন এক মহিলা।

একটি গাড়িটি যখনই চীনা নাগরিকদের নিয়ে বিশ্ব বিদ্যালয়ের ঢোকার মুহূর্তেই এই ধরনের বিস্ফোরণটি ঘটে। ওই মহিলার বয়স ৩০ বছর এবং যার দুটি সন্তান রয়েছে। এই হামলার আগেই নিজেই নিজের টুইটার হ্যান্ডেল একটি পোস্ট করেছিলেন “গুডবাই” বলে।

আরো পড়ুন: নতুন চাদর-বালিশ-কম্বল-তোয়ালে কে’না হলো, রেল খরচ করলো কোটি কোটি টা’কা

ওই মহিলা বালুচিস্তানের তুরবাতের নিয়াজার আবাদের বাসিন্দা। শারি প্রাণিবিদ্যা স্নাতকোত্তর পাস করেছে বালুচিস্তান বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে। এরপর আলামা ইকবাল মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি এমফিল করেছেন।

বিএড করেছেন ২০১৪ সালে অন্যদিকে এমএড করেছেন ২০১৮ সালে। কিছু বছর একটি প্রাথমিক স্কুলে ও তিনি শিক্ষকতাও করেছিলেন অবশেষে তার বিয়ে হয় একজন দন্ত চিকিৎসকের সাথে। তার দুটি ছেলে মেয়ে রয়েছে। শারির বাবা সরকারি সংস্থায় কর্মরতা। জেলা পরিষদের সদস্য হিসেবে বহুদিন কাজ করছেন, অন্যদিকে শারির দেওর একজন কলেজের অধ্যাপক।

শ্বশুরবাড়ি এবং বাপের বাড়ির দুটো দিকই উচ্চশিক্ষিত। শারির দুটো সন্তান রয়েছে এ কথা ভেবেই বি এল এর পক্ষ থেকে তার কাছে প্রস্তাব রাখা হয়েছিল কিন্তু তিনি সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করেন এবং আত্মঘাতী স্কোয়াডের কাজে নিজেকে আত্মসমর্পণ করেন।

আরো পড়ুন: মা হওয়ার পর ফের মারকাটারী শ’রী’র, অভিনেত্রী পূজার শাড়ি পরার স্টা’ই’লে ম’জ’লো নেটিজেনরা, ভাইরাল ভিডিও

শারি গত দুবছর ধরেই যুক্ত রয়েছেন মজিদ ব্রিগেডের সঙ্গে। কিছু মাস আগে এই দলটির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে শারি কথা বলেন এবং জানান যে আত্মঘাতী হামলার জন্য তিনি একদমই প্রস্তুত রয়েছেন, এর পরেই তাকে পাঠানো হয় আত্মঘাতী স্কোয়াডে।

বিএলএর প্রধান মুখপাত্র জিয়ান্দ বালোচ বিষয়ে বলেন, ” বালুচিস্তানের কখনোই চীনাদের প্রবেশ আমরা সহ্য করবো না এবং এর আগেও বালুচিস্তান থেকে যাতে তারা দূরে থাকে সে জন্য বহুবার সতর্ক করা হয়েছে”।

এই ঘটনাটির পরেই শারির স্বামী শারিকে উদ্দেশ্যে করে একটি টুইট করে লেখেন, “তোমার এই কাজের জন্য আমরা সকলে গর্ববোধ করছি, তুমি সব সময় আমাদের জীবনের বিশেষ একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা নিয়ে থাকবে”।