ভারতে একটি কাপড়ের দো’কা’নে’র নাম “Pakistani Attire”, উ’চ্ছ্ব’সি’ত পাকিস্তান

ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সম্পর্ক কারোর অজানা নেই। সীমান্ত নিয়ে এই দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মনোমালিন্য, পারস্পরিক সম্পর্কের দ্বৈরথ আন্তর্জাতিক মহলের চর্চার বিষয়বস্তু। তবে উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রকে সম্প্রীতির সুতোতে বেঁধে ফেলেছেন লুধিয়ানার এক কাপড়ের ব্যবসায়ী। লুধিয়ানার ভাই রনধীর সিং নগরের সি-ব্লক মার্কেটে পুনিত কৌড় নামের এক বস্ত্র বিক্রেতার দোকানের নাম রাখা হয়েছে পাকিস্তানি অ্যাটায়ার।

এই দোকানে প্রধানত পাকিস্তানি জামাকাপড়, ওড়না, কুর্তা এবং অন্যান্য সামগ্রী পাওয়া যায়। ভারতের মাটিতে এরকম একটি দোকান রয়েছে বলে জেনে পাকিস্তানীরাও আপ্লুত। তারা বিদেশের মাটিতে বেড়াতে এসে প্রায়শই পাকিস্তানি অ্যাটায়ার দোকানে এসে দোকানে মালকিনের সঙ্গে দেখা করে যান। দীর্ঘ প্রায় সাত বছর ধরে পাকিস্তান থেকে জামা-কাপড় নিয়ে এসে ভারতের মাটিতে সেগুলিকে বিক্রি করেন ওই দোকানের মালকিন।

তিনি জানাচ্ছেন পাকিস্তানের নামে দোকান খুলে এখানে কিন্তু তার কোনো সমস্যা হয়নি। তার বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন কিংবা খদ্দেররা পর্যন্ত এই নিয়ে কখনোই তাকে কখনো প্রশ্ন করেননি। তবে কেউ কেউ অবশ্য তাকে পরামর্শ দিয়েছেন পাকিস্তানকে প্রমোট না করার জন্য। কিন্তু দোকানের নাম বদলে ফেলার পরামর্শ কিংবা জোরজবরদস্তি কেউ কখনো তাকে করেন নি বলেই তিনি জানিয়েছেন।

India Pakistan Heritage Club নামের ফেসবুকের একটি গ্রুপে লুধিয়ানার বাসিন্দা জসবীর সিং সম্প্রতি এই দোকানের সম্পর্কে নেটিজেনদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। ভারত পাকিস্তান সীমান্ত বিতর্ককে কেন্দ্র করে উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে যেখানে শত্রুতা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে সেখানে এমন উদ্যোগকে স্যালুট জানাচ্ছেন অনেকেই।