কবে ভ্যা’ক’সি’ন পাবে শিশুরা? যা জানালেন AIIMS-র ডিরেক্টর

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলাকালীন এবার তৃতীয় ঢেউ সামাল দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত। বর্তমান পরিস্থিতিতে ১৮ বছরের উর্ধ্বে নাগরিকদের করোনা টিকা দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে দেশজুড়ে। তবে তৃতীয় ঢেউয়ে নাকি শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেশি বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে ভারতবর্ষে শিশুদের করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ এখনো শুরু হয়নি। শিশুদের ভ্যাকসিন কবে থেকে দেওয়া হবে তা জানতে উদগ্রীব অভিভাবকেরা।

এই পরিস্থিতিতে এইমসের প্রধান রনদীপ গুলেরিয়া জানালেন সেপ্টেম্বর মাসেই শিশুদের ভ্যাকসিন চলে আসবে ভারতের বাজারে। কেন্দ্রের তরফের টাস্কফোর্স আপাতত শিশুদের উপর কো-ভ্যাকসিনের প্রভাব জানার জন্য ট্রায়াল’ প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। সেই ট্রায়ালের ফলাফল প্রকাশিত হলে তবেই ভারতের বাজারে শিশুদের ভ্যাকসিন চলে আসবে বলে জানানো হয়েছে।

আপাতত কোভ্যাক্সিন শিশুদের ক্ষেত্রে কতটা গ্রহণযোগ্য এবং কার্যকরী তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে সংশ্লিষ্ট সংস্থা। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যেই সম্পন্ন হয়ে যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে। অতএব তার পরেই ভারতের বাজারে শিশুদের জন্য টিকা আসতে চলেছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। ট্রায়াল’ প্রক্রিয়া চালানোর জন্য আপাতত ২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্বেচ্ছাসেবকদের নির্বাচন শুরু করেছে দিল্লি AIIMS।

আগামী ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যেই ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে চলেছে বলে জানিয়েছেন এইমসের প্রধান। এবার অস্থায়ী ভারতের মতো বিপুল জনসংখ্যার দেশে সকলের টিকাকরণ বড়োসড়ো চ্যালেঞ্জ বলে মানছেন বিশেষজ্ঞরা। তার উপর আবার টিকা নিয়ে বহু ধোঁয়াশা রয়েছে মানুষের মনে। তবে এইমসের প্রধান অবশ্য জানাচ্ছেন কোভিশিল্ডের টিকার দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধান বৃদ্ধি পেলেও তাতে খুব একটা আশঙ্কা করার কিছু নেই।