বা’দ গে’লো না কাবুলের রাষ্ট্রপতি ভবন, আ’ছ’ড়ে পড়লো তিনটি মি’সা’ইল

আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার ফলাফল হাতেনাতে টের পাচ্ছে আফগানিস্তানের বাসিন্দারা। সেই প্রদেশে তালেবান জঙ্গিদের প্রভাব উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। উৎসবের মরসুমেই আফগানিস্তানের রকেট হামলা চালালো জঙ্গিরা। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে (Kabul) মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি ভবনের পাশেই রকেট হামলা চালানো হয়। সূত্রের খবর, ঘটনার সময় রাষ্ট্রপতি আশরফ গানি বকরি ঈদে নামাজে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন।

প্রসঙ্গত আফগানিস্তানের উপর থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর থেকেই একের পর এক তালিবানি জঙ্গিদের কার্যকলাপের ঘটনা প্রকাশ্যে আসছে। সেই প্রদেশের ৮০ শতাংশ এলাকায় নাকি তালিবানদের দখলে চলে গিয়েছে। পাশাপাশি, তালিবানরা আবার পাকিস্তানি গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের সহায়তা নিয়ে আফগানিস্থানে গড়ে ওঠা ভারতের সম্প্রতি ধ্বংস করার পরিকল্পনাও করেছে। আফগানিস্তানে সেনা অবশ্য তাদের ঠেকাবার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আফগানিস্তানে ক্রমশ তালিবানরা শক্তি বৃদ্ধি করছে। যা আফগানিস্তান তথা সমগ্র বিশ্বের কাছেই আশঙ্কার বিষয় বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০০১ সাল থেকেই আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের সুসম্পর্ক গড়ে উঠেছে। ফলে দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে আফগানিস্থানে ভারত অনেক বিনিয়োগ করেছে। রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে ২১৮ কিলোমিটারব্যাপী ডেলারাম থেকে জারাঞ্জ অবধি রাস্তা, তেমনি রয়েছে ভারত আফগানিস্তান মৈত্রী বাঁধ, এমনকি আফগানিস্তানের সংসদ ভবনও ভারতের অবদান।

দীর্ঘ কুড়ি বছরে ভারত প্রায় ৩০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ করেছে আফগানিস্থানে। জঙ্গিরা আগে আফগানিস্থানে গড়ে ওঠা ভারতীয় বসতি ধ্বংস করে ফেলার ষড়যন্ত্র করছে। শুধু আফগানিস্তানই নয় ইরান, উজবেকিস্তানের সীমান্ত ঘাঁটি গুলিরও দখল নিয়ে নিয়েছে তালিবানরা। তালিবানদের এই প্রভাব বিস্তারের কারণে আফগানিস্তানের বাসিন্দারা এই মুহূর্তে চরম সংকটের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন।