গুরু নানক জয়ন্তীতে স্বামীর সা’থে লাহোরে পাড়ি স্ত্রীর, পাকিস্তানি পুরুষকে বি’য়ে করলেন কলকাতার বধূ

গত ১৯ নভেম্বর ছিল শ্রী গুরু নানকের জন্ম দিন। আর এই জন্মজয়ন্তীর উৎসব উপলক্ষে কলকাতার বাসিন্দা এক মহিলা তার স্বামীর সঙ্গে লাহোরে যান। কিন্তু অদ্ভুত ব্যাপার, সেখানে গিয়ে এক কাণ্ড ঘটালেন ওই মহিলা। হঠাৎই কথা নেই, বার্তা নেই, লাহোরেই মুলতানবাসী এক পাকিস্তানি পুরুষকে বিয়ে করে ফেললেন ওই মহিলা।

জানা যাচ্ছে, ভারতীয় ওই মহিলা মূক ও বধির। বেশ কিছু তীর্থযাত্রী ১৭ নভেম্বর শ্রী গুরু নানকজির জন্মজয়ন্তীর উৎসব উদযাপন করতে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন। তিনি ওই তীর্থযাত্রীদের একটি দলের অংশ ছিলেন। লাহোরে গিয়েই বিয়ে করে বসলেন ওই মূক ও বধির মহিলা। জানা যাচ্ছে, লাহোরের একটি মসজিদেই মুসলিম রীতি অনুযায়ী বিয়ে হয় তাদের।

মহিলার নাম পরমজিৎ কৌর। তিনি কলকাতায় থাকতেন। শিখ ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম গ্রহণ করেন
সেখানে ইসলাম গ্রহণ করেন পরমজিৎ। ইন্টারনেটের মাধ্যমে পাকিস্তানি ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার আগে থেকেই যোগাযোগ ছিল। ৪০ বছর বয়সী পরমজিৎ কৌর গত দুই বছর ধরে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে পাকিস্তানি ওই ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছিলেন। কিন্তু যেহেতু দিল্লির ভিসা পেয়ে পরমজিৎ কৌর পাকিস্তানে গিয়েছেন, তাই তাকে সেখানে থাকার অনুমতি দেয়নি পুলিশ।

তবে এমন ঘটনা এবারেই প্রথম নয়, এর আগে ভারতের পাঞ্জাবের বালাচৌর শহরের বাসিন্দা কিরণ বালা পাকিস্তানের এক মুসলিম যুবককে বিয়ে করেন।