প্রেমিকাকে কা’ছে চা’ই, প্রতিদিন সন্ধ্যা থেকে রাত প’র্য’ন্ত বাড়ির সামনে ধ’র্ণা পুরুষ ছাগলের!

যদিও সিনেমা বাস্তবের ঘটনা নিয়েই রচিত হয়, ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতার থানার সুকান্ত পল্লীতে, যেখানে সুকান্তপল্লির এক গৃহস্থ বাড়ির সামনে সন্ধ্যে থেকেই অনেক রাত পর্যন্ত প্রায় এক প্রকার ধর্না দিতে দেখা গেল এক প্রেমিক ছাগলকে। হ্যাঁ ঠিকই শুনছেন এমনটাই ঘটেছে, যে সারাটা দিন কাটায় ওই গৃহস্থের পোষ্য মেয়ে ছাগলটির সাথে, পুরুষ ছাগলটি দেখতে খয়রি রঙের, প্রায় সমবয়সি বলা চলে তাদের।

সারাটা দিন কাটানোর পর সন্ধ্যেতে যখন তার প্রেমিকা ছাগলটি নিজের বাড়ি ফিরে আসে, তার কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখা মেলে ওই পুরুষ ছাগলটির, যে বারবার চিৎকার করতে থাকে গৃহস্থ বাড়ির সামনে, যার ফলে তার আওয়াজ শুনে ওই বাড়ির গৃহবধূ বেরিয়ে আসে, আর দেখেন তার বাড়ির সদর দরজার সামনে এক ভিন পাড়ার পুরুষ ছাগল দাঁড়িয়ে আছে।

বারংবার তাকে সেখান থেকে তাড়ানোর চেষ্টা করা হলেও সবই ব্যর্থ হয়, কোন কিছুতেই তাকে সেই জায়গাটি থেকে নড়ানো যায় নি। এমনকি পাড়ার কুকুর রাও তাকে আক্রমণ করার চেষ্টা করেছিল, তাই তাকে প্রাণে বাঁচাতে সেই পাড়ার ই একজন তাদের বাড়ি নিয়ে যায়, রাত টুকু আশ্রয় দেওয়া হয় তাকে, এখন আপাতত সেই ছাগলটির মালিকের খোঁজ করছেন সেই এলাকার বাসিন্দারা।

অন্যদিকে প্রেমিক ছাগলের ডাকে সাড়া দিয়ে প্রেমিকা ছাগলটি ও চিৎকার করতে শুরু করে এবং অনবরত ডাক পাড়ে। যদিও তাকে আটকে রাখা হয় দরজা বন্ধ করে। তবে এহেন ঘটনা শুনে অনেকেই প্রথমে হতচকিত হলেও, পরে কেউই হেসে কুলকিনারা পায়না। এহেন ঘটনা বেশ কিছুটা হাস্যরসাত্মক ও বটে, তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব তাড়াতাড়ি এই সংবাদটি ভাইরাল হয়ে যায়।