চোখের মণিতে লু’কি’য়ে আছে কার ক’তো বু’দ্ধি! কি বলছেন বিজ্ঞানীরা?

‘চোখের ভাষা মনের ভাষার প্রথম পরিচয়’ জনপ্রিয় এই বিশ্বাসের সঙ্গে বিজ্ঞানেরও একটি দৃঢ় সংযোগ রয়েছে। কারও প্রতি আকৃষ্ট হলে আপনার চোখের মণি বড় হয়ে যায়। সবচেয়ে দেখার মতো বিষয় হল, আপনার মণিযুগল আপনার সম্পর্কে আরও অনেক কিছু বলতে পারে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ার ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি গবেষণায় দেখতে পেয়েছেন যে, চক্ষুতারার আকার একজন ব্যক্তির বুদ্ধি সম্পর্কে বলতে পারে।

সম্প্রতি এই গবেষণাটি করেছেন বিজ্ঞানী জ্যাসম সুকাহারা এবং র‌্যান্ডাল অ্যাঙ্গেল।তাঁরা এবিষয়ে আলেকজান্ডার বার্গোয়েনের সঙ্গে একটি বৈজ্ঞানিক আমেরিকান নিবন্ধে লিখেছেন এবং চেতনা বিষয়ক জুনের সংখ্যায় তা প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন,”আমরা দেখতে পেয়েছি যে জ্ঞানের পরীক্ষাগুলিতে যারা সর্বাধিক নম্বর পেয়েছেন এবং যারা সর্বনিম্ন নম্বর পেয়েছেন তাদের মধ্যে চক্ষুতারার আকারের প্রধান পার্থক্য যে যথেষ্ট বড় ছিল তা নিঃসন্দেহে বলা যায়।”

প্রসঙ্গত,বিজ্ঞানীরা ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সের মধ্যে ৫০০ জন ব্যক্তির উপরে বিস্তারিতভাবে পরীক্ষা করেছিলেন।অংশগ্রহণকারীদের বিজ্ঞনীরা ল্যাবরেটরির আলোতে একটি ফাঁকা কম্পিউটারের স্ক্রিনে তাকাতে বলেন।তার পরে, গবেষকরা আই ট্র্যাকার ব্যবহার করে অংশগ্রহণকারীদের চক্ষুতারার আকারটি পরিমাপ করেন।এক্ষেত্রে কর্নিয়া এবং চোখের মণিকে সঠিকভাবে বোঝার জন্য কম্পিউটারের সঙ্গে সংযুক্ত একটি উচ্চ-শক্তিযুক্ত ক্যামেরা ব্যবহার করা হয় যা আই ট্র‍্যাকারের কাজ করেন।বিজ্ঞানীরা ওই আই ট্র‍্যাকার ব্যবহার করে প্রত্যেক ব্যক্তির চোখের মণির গড় আকার পরিমাপ করেন।