ক’রো’না কালে ৯৩০০ শিশু মা-বাবাকে হারিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টে রি’পো’র্ট জ’মা করলো শিশু অধিকার কমিশন

করোনাকালে দেশে অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে যত শিশু তাদের দায়িত্ব নেবে কে? এই মর্মে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে প্রশ্ন রেখেছিল উচ্চ আদালত। করোনাকালে অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের রিপোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে চেয়ে পাঠিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার উচ্চ আদালতের কাছে সেই রিপোর্ট তুলে ধরলো কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের তরফ থেকে ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে সম্পূর্ণ দেশজুড়ে ৯৩৪৬ জন শিশু করোনায় মা বাবাকে হারিয়েছে।

জাতীয় শিশু অধিকার রক্ষা কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই অনাথ শিশুদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষা প্রদান করার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ‌৬টি ধাপ বিশিষ্ট এক বিশেষ প্রকল্প চালু করা হয়েছে। অনাথ শিশুদের জন্য ‘বাল স্বরাজ’ নামের একটি নতুন পোর্টাল খুলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। জাতীয় শিশু অধিকার রক্ষা সংস্থা সম্প্রতি এই মর্মে সুপ্রিমকোর্টের কাছে একটি হলফনামা পেশ করেছে।

কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে যে এই পোর্টাল মারফত আবেদন করলে করোনাকালে মা-বাবাকে হারানো অনাথ শিশুদের সহায়তা করবে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের তরফ থেকে প্রকাশিত এই হলফনামায় জানানো হয়েছে অনাথ হয়ে পড়া শিশুদের মধ্যে ১৭৪২ জন বাবা-মা দু’জনকেই হারিয়েছে। ৭৪৬৪ জন হয় বাবা অথবা মাকে হারিয়েছে বিগত এক বছরে। গৃহহীন হয়ে পড়েছে ১৪০ জন।

এই সকল শিশুদের বয়স ১৭ বছরের মধ্যেই বলে জানানো হয়েছে। ৭৮৮ টি শিশু রয়েছে যাদের বয়স তিন বছরের কম। ৪-৭ বছরর মধ্যে রয়েছে ১৫১৫ জন শিশু এবং ৮-১৩ বছর বয়সি ৩৭১১ জন, ১৪-১৫ বছর বয়সি ১৬২০ জন ও ১৬-১৭ বছর বয়সি ১৭১২ জন শিশু রয়েছে এই তালিকায়। এই শিশুদের মধ্যে ১২২৪ জন অভিভাবকের কাছে থাকছে। ৯৮৫ জনের কোনও আইনসঙ্গত অভিভাবক নেই, ৬৬১২ জন মা অথবা বাবার কাছে রয়েছে এবং ৩১ জনকে দত্তক-কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।