বাড়ি ভা’ড়া দিলেন অমিতাভ বচ্চন, ভা’ড়া নিলো দেশের সবথেকে ব’ড়ো ব্যাংক SBI

বলিউডের বিগ বি- অমিতাভ বচ্চন। নামটা শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে লম্বা-চওড়া একটা মানুষ। মনে পড়ে একের পর এক তাক লাগানো সিনেমার কথা। যা দেখার জন্য সিনেমাহলে মানুষের ঢল, ব্ল্যাক টিকিট, একটা বিরাট ছবিতে লম্বা মালা এবং আরও কত কি! শোনা যাচ্ছে, তাঁর বাড়ির নাম যে জলসা তা আমরা অনেকেই জানি। বাড়ি না বলে প্রাসাদ বলাই ঠিক হবে। তিনি প্রাসাদোপম বাড়ির লাগোয়া সম্পত্তি ভাড়া দিচ্ছেন। তাই অমিতাভ বচ্চনের প্রতিবেশী হওয়ার সুযোগ কি মিস করা যায়? তার জন্য বিশেষ কিছু করতে হবে না। এই সুবর্ণ সুযোগ পাওয়ার জন্য শুধু মাসে মাসে অমিতাভের হাতে ১৮.৯ লক্ষ টাকা ভাড়া তুলে দিলেই নিশ্চিন্ত। কত বড় সুযোগ শুধু ভেবে দেখুন।

গোটা মুম্বাইতে অমিতাভের স্থাবর সম্পত্তি কিছুমাত্র কম নেই। তার বাড়ি ‘জলসা’ মুম্বাইয়ের অন্যতম দর্শনীয় স্থান। ‘জুহু ভিলে পার্লে ডেভলপমেন্ট’ স্কিমের আওতায় থাকা অমিতাভের এই সম্পত্তি জুহুর অন্যতম আকর্ষণ। অমিতাভের এই সম্পত্তির প্রতি স্কোয়ার ফিটের মূল্য ৬০০ টাকা! এই এলাকার অন্যান্য সাধারণ সম্পত্তির ক্ষেত্রে প্রতি স্কোয়ার ফিট বাবদ ভাড়া ওঠে ৪০০-৫০০ টাকা। তবে সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চনের সম্পত্তির ব্যাপার! একটু তো বেশি হবেই।

সূত্রের খবর, বিগ-বি তাঁর জলসা লাগোয়া সম্পত্তি ভাড়া দিচ্ছেন ভারতের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়াকে। অমিতাভ আগামী ১৫ বছরের জন্য এই সম্পত্তি লিজ দিলেন। জলসা লাগোয়া ‘ভাস্তা’ এবং ‘আম্মু’ বাংলো দুটিকে ভাড়া দিয়েছেন তিনি। এর আগে অবশ্য এই দুটি বাংলো সিটি ব্যাঙ্ককে লিজে দেওয়া হয়েছিল। ২০১৯ সালে সেই লিজের মেয়াদ শেষ হয়েছে। গত ২৮শে সেপ্টেম্বর স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এবং অমিতাভ বচ্চনের মধ্যে সম্পত্তি লিজ নিয়ে চুক্তিপত্র এবং অন্যান্য নথিপত্রে সইসাবদ সম্পন্ন হয়েছে বলে খবর।

শুধু ভাড়া নয়, অমিতাভের এই সম্পত্তি লিজ নেওয়ার জন্য ৩০.৮৬ লক্ষ টাকার স্ট্যাম্প ডিউটি এবং ৩০ হাজার টাকার রেজিস্ট্রেশন ফিও দিতে হয়েছে। প্রতি ৫ বছর অন্তর এই সম্পত্তির ভাড়ার পরিমাণ এক লাফে ২৫ শতাংশ করে বাড়াবে এসবিআই। সেরকমই চুক্তি হয়েছে উভয়পক্ষের মধ্যে। সেই চুক্তি অনুসারে প্রথম ৫ বছর প্রতি মাসে অমিতাভের সম্পত্তির জন্য ১৮.৯ লক্ষ টাকা করে ভাড়া গুনবে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ। কি হিসাব করে দেখবেন নাকি আগামী বছরগুলোতে সেই ভাড়ার পরিমাণ ঠিক কতটা হবে?