এবার বচ্চন পরিবারের বাং’লো “প্রতীক্ষা” ভা’ঙ’তে চ’লে’ছে BMC

মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে বাদানুবাদের পরেই বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের মুম্বাইয়ের অফিসের একাংশ ভেঙে ফেলে ছিল বৃহন্মুম্বাই পুরসভা। পুরসভার অবশ্য দাবি ছিল যে কঙ্গনার সম্পত্তি অবৈধ। তবে আদালতে অবশ্য পুরসভার সেই দাবি খারিজ হয়ে যায়। উল্টে কঙ্গনাকেই ক্ষতিপূরণের টাকা দিতে হয় বিএমসিকে। এখন আবার বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের বাড়ি ভেঙে ফেলার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিএমসি।

সন্ত দানেশ্বর মার্গ রোডের সম্প্রসারণের কাজের জন্য বাধ্য হয়েই অমিতাভের পুরনো বাড়ি ‘প্রতীক্ষা’র একাংশ ভেঙে ফেলা হবে বলে বিএমসির তরফ থেকে অমিতাভের কাছে একটি নোটিশ পৌঁছেছিল। সেই নোটিশ পৌঁছেছিল আজ থেকে প্রায় চার বছর আগে। অথচ এখনও সেই কাজ কার্যকর করা হয়নি। এতেই কার্যত বিএমসির উপর অভিযোগের আঙুল তুলেছেন কংগ্রেস কাউন্সিলর তথা আইনজীবী তুলিপ বরীয়ান।

তার দাবি ২০১৭ সাল থেকেই রাস্তা সম্প্রসারণের কাজ বাকি পড়ে রয়েছে। অমিতাভ বচ্চনের বাড়ি ভাঙতে এত গড়িমসি করছে কেন বিএমসি? প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তার দাবি অমিতাভ বচ্চনের বাড়ি বলেই ভাঙতে এত দেরি করছে বিএমসি। সাধারণ মানুষের বাড়ি হলে এত সময় নিত না তারা। মুম্বাই সাবার্বান কালেক্টর সিটি সার্ভে অফিসিয়ালদের এর আগেই বাড়ির কতটা অংশ ভাঙতে হবে তা নিয়ে রিপোর্ট পেশ করার কথা বলা হয়েছিল। তবে এখনো সেই কাজ হয়নি।

প্রসঙ্গত, ‘প্রতীক্ষা’ বচ্চন পরিবারের প্রথম বাড়ি। এই বাড়িতে অমিতাভ বচ্চনের বাবা হরিবংশ রাই বচ্চন এবং তার মা তেজী বচ্চন তাদের জীবন অতিবাহিত করেছেন। আবার অমিতাভ পুত্র অভিষেক এবং কন্যা শ্বেতার বিবাহ অনুষ্ঠান এই বাড়ি থেকেই সম্পন্ন হয়েছিল। স্বভাবতই এই বাড়িটিকে কেন্দ্র করে বচ্চন পরিবারের বহু স্মৃতি রয়েছে। তবে পুরসভার কাজের উন্নয়নের জন্য এই বাড়ির কিছুটা অংশ ভেঙে ফেলা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।