বাংলায় বাড়ছে ভা’ই’রা’সে’র প্রকোপ, এরই মধ্যে আ’রো বে’শি করে ছা’ড় দি’লো রাজ্য সরকার

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। রাজ্য সরকারের নির্দেশে জারি রয়েছে কড়া বিধি নিষেধ। যার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার আগেই রাজ্য সরকার ফের করোনা সংক্রান্ত বিধি নিষেধ জারি করলো। বিয়ে বাড়িতে আরও বেশি সংখ্যক মানুষের প্রবেশের অনুমতি দিল রাজ্য সরকার। গঙ্গাসাগরের পর এবার একই সঙ্গে আরও বেশ কয়েকটি মেলার আয়োজনেও ছাড় দেওয়া হয়েছে। খোলা স্থানে মেলার আয়োজন করা যেতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

শনিবার নবান্নের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি নির্দেশিকাতে জানানো হয়েছে আপাতত রাজ্যে যে সমস্ত বিধি-নিষেধ কার্যকর করা আছে তা 31 শে জানুয়ারি পর্যন্ত জারি থাকবে। বিয়ে বাড়ির উপর থেকে বিধি-নিষেধ সামান্য শিথিল করা হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানে সর্বাধিক 50 জন উপস্থিত থাকতে পারবেন বলে জানানো হয়েছিল। সেই সংখ্যাটা বাড়িয়ে সর্বোচ্চ সীমা 200 করা হয়েছে।

কোনো হলের মোট ধারণক্ষমতার 50 শতাংশ মানুষ অথবা 200 জন, যেটা কম হবে, তত সংখ্যক মানুষ উপস্থিত থাকবেন বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানে। খোলা জায়গাতে নিয়ম মেনে মেলার আয়োজনের অনুমতি দিয়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের এই ছাড় দেওয়া নিয়ে এখন প্রশ্ন উঠছে। কারণ বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। গত দোসরা জানুয়ারি যখন রাজ্যে বিধি নিষেধ জারি করা হয়েছিল তখন দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল 6153 জন।

বর্তমানে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা 22645 জন। সেখানে সংক্রমণের হার প্রায় 31 শতাংশ বেড়েছে। এমতাবস্থায় বিয়ে বাড়ি এবং মেলাতে ছাড় কেন দেওয়া হল সেই নিয়ে রাজ্য সরকারের দিকে প্রশ্নের আঙ্গুল উঠছে।