অ’র্থ-খ্যা’তি সবই আ’ছে, কিন্তু তবুও বি’য়ে ক’রে’ন’নি! জানুন রতন টাটার ক’রু’ন কা’হি’নী

সময় তিনি এখনো এমন কিছু মানুষ আছে আমরা অত্যন্ত ধনী হয়েও ভীষণ উদার। তারা মানুষের সাহায্যে দুহাত বাড়িয়ে দেন।
এই মানুষটার অঢেল অর্থ থাকা সত্ত্বেও তিনি অদ্ভুত রকম ভাবে উদার মানসিকতার একজন মানুষ। বিভিন্ন মানুষের থেকে অনেক ভালোবাসা ও সম্মান নিয়ে পেয়েছেন জীবন ভর।

সবকিছু থাকা সত্বেও তিনি সারাজীবন অবিবাহিত হয়ে গেলেন কেনো? এমন নয় যে তার জীবনে কখনো প্রেম আসেনি। তিনি অল্প বয়সের অত্যন্ত সুপুরুষ ছিলেন। নিজের জীবনের কাহিনী একবার ফেসবুক পেজে সাক্ষাৎকারে বলেছিলে।তার বাবা নাভেল টাটা দিয়েছিলেন যে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোনো এক কলেজে ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ুক।কিন্তু তিনি আকিটেকচার নিয়ে পড়তে চেয়েছিলেন।এরপর পর তিনি আমেরিকায় আর্কিটেকচার নিয়ে পড়াশোনা করেন ঠাকুমার সহায়তায়।

সেখানে কাজ করার সূত্রে এক মার্কিন তরুণীর প্রেমে পড়েন তিনি।একসাথে বিয়ে করবেন বলে ঠিক ও করেন। হঠাৎ ঠাকুরমার শরীর খারাপ হওয়ায় তাকে দেশে ফিরতে হয়।ঠিক হয়েছিল তার প্রেমিকা ভারতে এসে বিয়ে করে তারা সংসার পাতবেন।সেই সময়1962 সালে তখন ইন্দচিনা লড়াই শুরু হয়। তাই তাদের পরিবার তরুণীকে ভারতে আসতে দেই না।সেই কারণে সেখানেই থেমে যায় রতন টাটার প্রেম কাহিনী।