“খেলা হবে” প্র’ক’ল্পে’র সূ’চ’না রাজ্যে, ক্লাবগুলোকে ক’য়ে’ক ল’ক্ষ ফুটবল বি’ত’র’ণ ক’র’বে সরকার

একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের তরফ থেকে বহু শ্লোগান উঠেছিল। তবে তার মধ্যে সর্বাধিক জনপ্রিয় হয়েছিল খেলা হবে স্লোগানটি। একুশের নির্বাচনী খেলা শেষ। তবে খেলা হবে স্লোগানটিকে এবার এক নতুন পর্যায়ে মান্যতা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা সরকার এবার খেলা হবে স্লোগান নিয়ে খেলা হবে প্রকল্প চালু করতে উৎসাহী। যে প্রকল্পের আওতায় রাজ্য সরকার রাজ্যের প্রতিটি ক্লাবকে ফুটবল বিলি করবে।

সম্প্রতি নবান্নের তরফ থেকে রাজ্য সরকারের এমন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। রাজ্য সরকার জানিয়েছে যে, কিশোর এবং যুবকদের খেলার প্রতি উৎসাহী করে তোলার উদ্দেশ্যেই এই খেলা হবে প্রকল্প বাস্তবায়িত করা হতে চলেছে। এর জন্য রাজ্যের বিভিন্ন ক্লাবে কিশোর এবং যুবকদের খেলার জন্য বিনামূল্যে ফুটবল বিলি করা হবে। খেলা হবে প্রকল্পটি প্রধানত রাজ্যের কিশোর এবং যুবকদের জন্যই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিপূর্বে ক্লাবগুলির জন্য রাজ্যের কোষাগার খুলে দিয়েছিলেন। রাজ্যের বিভিন্ন ক্লাবকে কয়েক লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে। এবার টাকার বদলে ফুটবল বিলি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছে বিভিন্ন ক্লাব কর্তৃপক্ষগুলি।

খেলা হবে স্লোগানটিকে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতির স্তরে ইতিপূর্বে বহু বিতর্ক দেখা দিলেও এই স্লোগানটি কার্যত তৃণমূলের জন্য লাভজনক প্রমাণিত হয়েছে। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখে শোনা গিয়েছে এই স্লোগান। এর জন্য অবশ্য বিরোধিতা তার কম সমালোচনা করেনি। এবার বিরোধীদের সমালোচনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খেলা হবে প্রকল্প চালু করলেন। রাজ্যের প্রতিটি ক্লাব এখন থেকে এই খেলাই খেলবে।