“তোমরা কি ছাগল না পাগল?”, ধর্মযুদ্ধ ব’য়’ক”টের ডাক দিতেই ক্ষু’দ্ধ রাজ চক্রবর্তী

সদ্য মুক্তি পেয়েছে রাজ চক্রবর্তী ধর্মযুদ্ধ। এই ছবি না দেখে ধর্মীয়ভাবে যে আঘাত থানার অভিযোগে বয়কটের ডাক দিয়েছেন অনেকে। বহুদিন বাদে রাজনৈতিক ছবি বানিয়েই বয়কটের মুখে পড়তে হল রাজ চক্রবর্তীকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমত বয়কটের ট্রেন্ড উঠেছে।

হিন্দু ধর্মকে নিশানা করার অভিযোগে এই ছবিকে হিন্দু বিরোধী বলে অভিযোগ করে বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে। রাজ চক্রবর্তীকে রাজ খান চক্রবর্তী বলে কটাক্ষ করে প্রশ্ন করা হয়েছে সনাতন ধর্মীয় ভাবাবেগ আঘাত করার সাহস কোথা থেকে পেলেন রাজ? এই নিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে এবং সোশ্যাল মিডিয়াতে রীতিমতো পাল্টা আক্রমণ করেছেন রাজ।

তিনি বলেছেন ধর্মযুদ্ধতে কোথাও এক ফোঁটা রক্তপাত দেখানো হয়নি। সিনেমা না দেখেই বয়কটের ডাক যারা দিচ্ছে তারা কি ছাগল না পাগল? এই বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমের কাছে ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে রাজ বলেছেন ছবি না দেখে এরকম কথা বললে তিনি মানবেন না।

আরো পড়ুন: ১৫ লাখের চ্যালেঞ্জ ছুঁ’ড়ে দিলেন নির্মলাকে, ফে’র শিরোনামে মহুয়া মৈত্র

ছবি দেখে সমালোচনা যদি কেউ করতেন তাহলে তিনি শুনতে রাজি ছিলেন। তিনি আরো বলেছেন এই ধরনের কাজ টাকা দিয়ে করানো হয়। ইচ্ছা করে অশান্তির সৃষ্টি করার জন্যই এমনটা করা হচ্ছে। সিনেমার ট্রেলার দেখার পার্ণো মিত্রকে কটাক্ষ করে বয়কটের ডাক উঠেছিল প্রথমে।


বিজেপি নেতা তথাগত রায় তাকে কটাক্ষ করে বলেন ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে হিন্দুত্ববাদী পার্টির প্রার্থী ছিলেন এই অভিনেত্রী। এখন তিনি মানুষের পরিচয় বোঝাতে ময়দানে নেমেছেন। ‘হিন্দু বিরোধী ভন্ডামি’র বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন তথাগত রায়।