ভূমিকম্পের পর ২৪ কি’মি উচ্চতায় পৃথিবীর গোঙানির শ’ব্দ শুনতে পে’লো নাসা-র বেলুন

প্রকৃতি যে রুষ্ট, তা বুঝিয়ে সে। গোটা বিশ্বজুড়ে একের পর এক প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটে চলছে। কোথাও ঝড়, কোথাও বৃষ্টি, কোথাও ভূমিকম্প। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন হচ্ছে বিশ্ব। একদিকে যেমন গোটা বিশ্ব করোনার মত মহামারীর সঙ্গে লড়াই করছে তেমনি পাশাপাশি লড়াই করছে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সঙ্গে।

ভূপৃষ্ঠ থেকে ২৪ কিলোমিটার উঁচু এবং সেখান থেকেই শোনা গেল গোঙানির শব্দ। এরকম ঘটনা ঘটলো ভূমিকম্প হওয়ার পরে, তারপর সেখান থেকে বেরিয়ে এল গোঙানির শব্দ। গোঙানির শব্দ শুনেছে নাসার বেলুন।

বিজ্ঞানীরা এখনো ভাবছেন যে, এই রকম একটি গোঙানি শুনে কি আগামী দিনে কোথায় ভূমিকম্প হতে পারে সে সম্পর্কে কিছু বোঝা সম্ভব কিনা। বিজ্ঞানী মহলে এখন পরিকল্পনা চলছে, এইরকম একটি অভিনব পদ্ধতির মাধ্যমে অন্যান্য যে সমস্ত গ্রহ রয়েছে সেই সমস্ত গ্রহের অন্দরে কি পরিবর্তন গুলি ঘটছে সে সম্পর্কেও বোঝা এবং জানা যেতে পারে।

মহাকাশে থাকার সমস্ত গ্রহ গুলির মধ্যে যে সমস্ত গ্রহগুলির সূর্যের একদম সামনে রয়েছে, সেই সমস্ত গ্রহ গুলিতে কখনোই মহাকাশযান নামানো সম্ভব হবেনা, সেই জন্যেই এই ধরনের অভিনব পদ্ধতি ব্যবহার করা হচ্ছে।

নাসার তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে ৪ এবং ৬ তারিখে ক্যালিফোর্নিয়ার রিজক্রেস্টে অনেক বড় দুটো ভূমিকম্প হয়েছিল।