অবসর ভেঙে ফের মাঠে ফিরছেন যুবরাজ! খুশির হাওয়া ক্রিকেটপ্রেমীদের

২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ চলাকালীন অবসর গ্রহণ করেছিলেন যুবরাজ সিং। ২০১১ সালের বিশ্বকাপের সিরিজ সেরা ছিলেন তিনি। ২০০৭ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলেছিলেন। তবে ক্যারিয়ারের শেষের দিকে ভারতীয় দলে সুযোগ না পাওয়ায় তাঁর আক্ষেপটা স্পষ্ট ছিল। সব কিছু মেনে নিয়ে তিনি অবসর গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এরপর পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন তাঁকে মাঠে ফেরার জন্য অনুরোধ জানায়।

সব ঠিকঠাক থাকলে যুবরাজ সিং আবার ফিরতে পারেন বাইশ গজে। তিনি নিজেই জানিয়েছেন, অবসর ভেঙে আবার বাইশ গজে ফিরতে চাচ্ছেন তিনি। গত কয়েকমাস পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনে ক্রিকেটারদের সঙ্গে অনেক সময় কাটিয়েছেন যুবরাজ। তাঁদের ট্রেনিং দিয়েছেন, ভবিষ্যতের জন্য গড়ে তোলার চেষ্টা করেছেন। এবার তিনি ক্রিকেট সংস্থার কর্তাদের কথা শুনে হয়তো শীঘ্রই ব্যাট হাতে তুলে নেবেন। যুবরাজকে ঘরোয়া ক্রিকেটে পাঞ্জাবের হয়ে টি-২০ ম্যাচে দেখা যেতে পারে।

বুধবার একটি ইংরেজি সংবাদমাধ্যমকে যুবরাজ বলেন, এই সব তরুণ তুর্কিদের সঙ্গে সময় কাটিয়ে তাঁর দারুণ লাগছে। খেলার নানা দিক নিয়ে ওদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন এবং তাঁর মনে হয়েছে, ওরা অনেককিছু শিখে নিতে পারবে। পাশাপাশি তিনি বলেন, ওদের বিভিন্ন বিষয় বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য ব্যাট হাতে নেটে নামতেই হয়েছিল এবং নিজের পারফরম্যান্স দেখে নিজেই ঘাবড়ে গেছিলেন। দীর্ঘদিন না খেলেও দারুণভাবে শটগুলো মারছিলেন।

অফ-সিজন ক্যাম্পেও ব্যাটিং প্র্যাকটিস করেছিলেন, কয়েকটা প্র্যাকটিস ম্যাচে রানও করেছেন। তারই মাঝে পাঞ্জাব ক্রিকেট সংস্থার পুনিত বালি তাঁকে অবসর ভেঙে কামব্যাক করতে অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, বিসিসিআইয়ের অনুমতি পেলে বাইরের দেশের লিগে খেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পাঞ্জাবের প্রস্তাব গ্রহণ করে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরবেন কি না, প্রথমে তিনি বুঝতে পারছিলেন না।

প্রায় ৩-৪ সপ্তাহ ভাবার পর ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেন। তরুণদের নিয়ে তৈরি পাঞ্জাব দলকে তিনি চ্যাম্পিয়ন হিসেবে দেখতে চান এবং সেই জন্যই ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তিনি বলেছেন, এই দলের হয়ে খেলেই তিনি আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে পা রেখেছিলেন। তাই এই সংস্থার জন্য কিছু করতে পারলে ভালো লাগবে বলে জানান তিনি। তিনি বিসিসিআইয়ের কাছে লিখিতভাবে অবসর ভাঙার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন। তবে এখনও ভারতীয় বোর্ডের তরফে কোনও জবাব মেলেনি। যদি অনুমতি পান, তবে পাঞ্জাবের হয়ে বাইশ গজে ফিরবেন যুবরাজ।