সুন্দরীর খপ্পরে যুবক, ব্যাংক থেকে উধাও ৫৫ লাখ

এ যেন একেবারে বলিউড সিনেমা “লেডিস ভার্সেস রিকি বেহেল”র বাস্তব দৃশ্যপট! চার সুন্দরীর ফাঁদে পড়ে সর্বস্ব খোয়ালেন এক যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে দুবাইয়ে। তবে দুবাইয়ের এই ঘটনা সারা বিশ্বে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়ে দিয়েছে। এখানেও কার্যত অনলাইন প্রতারণার অভিযোগই উঠছে। একটি অ্যাপ্লিকেশন মারফত ওই যুবককে প্রলোভন দেখায় চার নাইজেরিয়ান মহিলা।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযোগকারী ওই যুবক জানিয়েছেন একটি অ্যাপ্লিকেশন মারফত ২০০ দিরহাম অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩ হাজার ৯৫০ টাকার বিনিময়ে সুন্দরীরা ম্যাসাজ করাবেন, এমনই একটি বিজ্ঞাপন দেখে প্রলোভনে পা দেন ওই যুবক। সংশ্লিষ্ট নম্বরে ফোন করে যোগাযোগ করলে তাকে দুবাইয়ের আল রেফা এলাকার একটি আবাসনে যেতে বলা হয়।

সেই আবাসনে প্রবেশ করতেই প্রথমে চার আফ্রিকান মহিলা তাকে অভ্যর্থনা জানান। এরপরই জোর জবরদস্তি ব্যাংক থেকে টাকা পাঠাতে বাধ্য করা হয় তাকে। অভিযোগ এক মহিলা তার গলায় ছুরি চেপে ধরে। চড়-থাপ্পড় মেরে ব্যাংকের অ্যাপ খুলে তখনই টাকা ট্রান্সফারে বাধ্য করা হয় তাকে। একজন তার ক্রেডিট কার্ড থেকে ছয় লাখ টাকা তুলে নেয়। বাকিরা ৫০ লাখ টাকা ছোট ছোট কিস্তিতে ব্যাঙ্ক ট্রান্সফার করিয়ে নেয়।

শুধু তাই নয়, নিজের আইফোনটিও তাদের হেফাজতে রেখে তবে মহিলাদের কবল থেকে মুক্তি পান ওই যুবক। এরপরই অবশ্য পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি। পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে তিন জন মহিলাকে গ্রেফতার করেছে। বাকি একজন এখনো পলাতক। ধৃতরা স্বীকার করে নিয়েছে টিন্ডার অ্যাপের লাস্যময়ীদের ছবি ব্যবহার করেই টোপ ফেলতেন তারা। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ডাকাতি, হুমকি দেওয়া এবং এক ব্যক্তিকে জোর করে ধরে রাখার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।