বিতর্কের মুখে পড়ে অবশেষে প্যান্ডেল করে দুর্গাপুজোর অনুমতি দিল যোগী সরকার

প্রতীকি ছবি

বিতর্কের মুখে পড়ে অবশেষে রাজ্যে দুর্গাপূজা পালনের অনুমতি প্রদান করলো উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী তরফ থেকে একটি নতুন নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানানো হলো, করোনা মহামারীর আবহে নির্দিষ্ট নিয়মবিধি মেনে প্যান্ডেল করে দূর্গা পূজার আয়োজনে থাকছে না কোনো বাধা। এসংক্রান্ত একটি গাইডলাইনও প্রকাশ করেছে যোগী আদিত্যনাথের সরকার। অনুমতি পেয়ে স্বভাবতই বেশ খুশি উত্তরপ্রদেশের পুজো উদ্যোক্তারা।

সরকারের তরফ থেকে প্রকাশিত নির্দেশিকা অনুসারে, পুজো উদ্যোক্তাদের প্যান্ডেলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সকল দর্শনার্থী যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্যান্ডেলে প্রবেশ করেন সেদিকে কড়া দৃষ্টি রাখতে হবে প্যান্ডেলের কর্মকর্তাদের। এছাড়াও মাছ এবং স্যানিটাইজারের ব্যবহারও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। উল্লেখ্য, করোনা মহামারীর কারণে এবছর উত্তরপ্রদেশ সরকার প্রাথমিকভাবে সে রাজ্যে দুর্গাপূজা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়, এ বছর দুর্গা পূজার প্যান্ডেল করে পূজার আয়োজন করা যাবে না। তার বদলে, উদ্যোক্তারা নিজেদের বাড়িতে পূজার আয়োজন করতে পারেন। তবে, উত্তরপ্রদেশের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতির মেনে রামলীলা উৎসব পালন করা হবে। সরকারের এই ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে সরব হন বিরোধীরা। তাদের যুক্তি, নির্দিষ্ট নিয়ম বিধি মেনে যদি রামলীলা উৎসব পালন করা যায়, তাহলে প্যান্ডেল দুর্গাপূজা উৎসব পালনের ক্ষেত্রে বাধা দেওয়া হচ্ছে কেন?

বিতর্কের সম্মুখীন হয়ে পড়ে অবশেষে সিদ্ধান্ত বদলাতে বাধ্য হলো উত্তরপ্রদেশ সরকার। তবে, রামলীলা এবং দুর্গাপূজা উৎসব পালিত হলেও,এবছর উত্তরপ্রদেশে নবরাত্রি উৎসবের আয়োজন করা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে সরকার। পুজোর অনুমতি পেয়ে জানকীপুরম এলাকার দুর্গাপুজো কমিটির সদস্য আনন্দ বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।