সময় মাত্র 48 ঘন্টা, উগ্র মেজাজে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় “আমফান”, সঙ্গে রয়েছে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছিল এপ্রিল মাস থেকে বা মে মাসের প্রথম থেকে শুরু হবে ঘূর্ণিঝড় আমফান তান্ডব। এবার সেই কথা মতোই কাজ হতে চলেছে বলে জানা যাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে। আন্দামান সাগরের দক্ষিণ পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগর এই সব জায়গা থেকেই সৃষ্টি হবে ঘূর্ণিঝড়, যেটা মূল ভূখন্ডের দিকে অগ্রসর হতে চলেছে।

আর এর কারনেই থাকবে সমুদ্র উত্তাল। স্বাভাবিকভাবেই কলকাতার আকাশ ছিল সকাল থেকেই মেঘলা, তাই রোদের দেখা মেলে নি সকাল থেকে। এই আবহাওয়ার কারণে বাতাসে ভ্যাপসা গরম বৃদ্ধি পেয়েছে আর আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি । আজ কলকাতার সর্বনিন্ম তাপমাত্রা ২৪.৬ ডিগীর কাছাকাছি। এদিকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টির প্রভাব বাড়বে, বিশেষ করে দক্ষিণ বঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় উপকূলের জেলাগুলোতে সব থেকে বেশী প্রভাব পরবে।

মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম সব জায়গায়। আর এই ঝড় বৃষ্টি আগামী কয়েকদিন পর্যন্ত বিরাজ করবে রাজ্যে। গত কয়েকদিন থেকে তাপমাত্রার তারতম্য দেখা যাচ্ছে, আর সেই কারণেই কলকাতার তাপমাত্রা আজ ২৪ ডিগড়ি থেকে ৩৩.৯ ডিগ্রী পর্যন্ত বিরাজ করছে। এদিকে বাতাসে বৃদ্ধি পেয়েছে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ এখন সর্বোচ্চ ৮৯%। এদিকে দক্ষিণ বঙ্গের কথা তো হয়ে গেলো, এবার আসা যাক উত্তরবঙ্গের কথায়, এখানেও বিভিন্ন জেলায় ভারী ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন আবহাওয়া দপ্তর। সাথে ঝড়ো হাওয়া ৩০-৪০ কিমি স্পিডে।

এদিকে উত্তরবঙ্গ থেকে ছত্তিশগড় পর্যন্ত জোড়া ঘূর্ণাবাতের ফলে এই ঝড় বৃষ্টির দাপট তুলনামূলক আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকছে প্রচন্ড ভাবে। আর সেই কারণেই উপকূলের জেলা দুই ২৪ পরগণা, মুর্শিদাবাদ সব জায়গায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।এদিকে এবার যদি আমফানের কথা বলা যায়, আগামী ৩ রা মে পর্যন্ত আছড়ে পরতে চলেছে ।

এই ঘূর্ণিঝড় আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যেই যে নিন্মচাপে পরিণত হবে সেটা স্পষ্ট জানিয়েছে তারা, আন্দামান সাগরে তৈরী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড়। ঘূর্ণিঝড়ের ২৪ ঘন্টা পর আরও শক্তিশালী হয়ে উঠবে এমনতাই আশা করা যাচ্ছে। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গেছে ঝড়ের প্রভাব মায়ানমার ও বাংলাদেশেও পরতে পারে। তবে ৩ রা মে পর্যন্ত আন্দামান সহ আরও বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টির একটা ভালো প্রভাব পরবে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন