ল’ক’ডা’উ’ন কি উঠে যাবে? যা ইঙ্গিত দি’লো রাজ্য সরকার

রাজ্য সরকারের নির্দেশে বিগত প্রায় এক মাস ধরেই রাজ্য জুড়ে চলছে লকডাউন। লকডাউন পর্বে জরুরী পরিষেবা বাদে বাকি সমস্ত পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। যার মধ্যে পরিবহন ব্যবস্থাও অন্তর্ভুক্ত। ট্রেন চলাচল বিগত প্রায় এক মাস ধরেই বন্ধ। করোনার সংক্রমণের চেইন ভাঙতে এক মাসের লকডাউন পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। চলতি মাসের ১৫ তারিখে তা সমাপ্ত হতে চলেছে।

রাজ্য সরকার আবার নতুন করে লকডাউন চালু করবেন নাকি এবার কড়া লকডাউনের হাত থেকে একটু রেহাই মিলবে, তা রাজ্যবাসীর কাছে প্রধান চর্চার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছে। গণপরিবহন মাধ্যমগুলি চাইছে এই দীর্ঘ লকডাউন পর্ব পেরিয়ে এবার যেন গণ পরিবহন ব্যবস্থায় কিছুটা ছাড় দেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এ বিষয়ে সরকারের মতামত কি? তা জানতে উদগ্রীব রাজ্যবাসী।

নবান্ন সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ নবান্নে গণপরিবহন ব্যবস্থা চালু নিয়ে বৈঠকের আয়োজন করতে পারেন। সরকারি বাসগুলিকে ইতিমধ্যেই স্যানিটাইজ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। পরিবহন নিগমের কাছে ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের এই মৌখিক নির্দেশ পৌঁছেছে। অতএব আশা করা হচ্ছে আজকের বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী পরিবহন ব্যবস্থায় ছাড় দিলেও দিতে পারেন।

সরকারি পরিবহন কর্মীদের সোমবার অফিসে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সোমবার রাজ্যের পরিবহন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে রাজ্য সরকার। অতএব পরিবহন সংস্থাগুলির পাশাপাশি নিত্যযাত্রীরাও রাজ্য সরকারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত সম্পর্কে জানতে উদগ্রীব।