গঙ্গা জল কেন এতো পবিত্র? হিন্দুদের মধ্যে কেনো এই জল গুরুত্বপূর্ণ, জেনে নিন

চিরকাল গঙ্গা নদী কে আমরা পবিত্র নদী হিসেবে বিবেচিত করে এসেছি। স্বয়ং মহাদেবের জটা থেকে উৎপত্তি হয়েছিল তার।তিনি একইসঙ্গে দেবী এবং অন্যদিকে একটি নদী। গঙ্গাকে আমরা মাতৃ রূপে পুজো করে থাকি।আবার একইসঙ্গে গঙ্গার জল পুজোতে ব্যবহার করি আমরা। গঙ্গামতি নদী যে একাধারে সমস্ত দেশকে সুজলা সুফলা করে রাখতে সাহায্য করেছে। গঙ্গার পাশে গড়ে উঠেছে বহু মানুষের জনবসতি। গঙ্গা স্নান করে মনের মলিনতা দূর করে বহু মানুষ। শাস্ত্রে বলা হয় যে,কোনো মৃত ব্যক্তির মুখে যদি গঙ্গা জল দেওয়া যায় তাহলে, মৃত্যুর পর সেই মৃত ব্যক্তির আত্মা শান্তি পায়।

এমনকি মহালয়া দিন পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনা করার জন্য গঙ্গা জলে তর্পণ করে বহু মানুষ। আমাদের ধারণা যে, তর্পণ করার ফলে আমাদের পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি পায়। যে ব্যক্তি এই কাজ করে তার সংসার আনন্দে ভরে উঠে।

তবে গঙ্গাজলের এত মাহাত্ম্য কেন এই প্রশ্ন অনেকবারই ঘুরপাক খেয়েছে আমাদের মনের মধ্যে এতগুলি নদী থাকার পরেও কেন গঙ্গাজলকে আমরা পবিত্র বলে মনে করি। চলুন আজকে এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক যে, কেন গঙ্গাজল কে পবিত্র বলে মনে করা হয়। প্রচলিত মত অনুসারে,গঙ্গা জল দিয়ে আমরা সমস্ত অপবিত্রতাকে দূর করতে পারি। সৃষ্টিকাল থেকে চলে আসছে এই বিশ্বাস। তবে গঙ্গা জল কি আদৌ সত্যি পবিত্র? তার কি সত্যি ক্ষমতা আছে সমস্ত অপবিত্র মানসিকতাকে ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করে দেবার?

হ্যাঁ আছে। গঙ্গার উৎস পুরাণে বলা আছে, রাজা সাগরের ৬০ হাজার ছেলেকে উদ্ধার করার জন্য স্বর্গ থেকে গঙ্গা কে নিয়ে এসেছিলেন ভগিরথ। কিন্তু মর্তে আসার পর গঙ্গার প্রবাহ এতোখানি বেড়ে গেছিল যে, তাকে নিয়ন্ত্রণ করা অসম্ভব হয়ে গেছিল। তখন ভগবান শিবের জটা ধারণ করে গঙ্গাকে এবং তারপর বিভিন্ন শাখায় বিভক্ত হয়ে যায় গঙ্গা। বিষ্ণুর পাদদেশ দিয়ে প্রভাবিত হয়েছিল বলে গঙ্গার আরো একটি নাম হল বিষ্ণুপদী।

গঙ্গার জলকে পবিত্র মনে করার আরেকটি কারণ হলো, বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিভঙ্গি। হিমালয় থেকে যেহেতু গঙ্গার জলের সূত্রপাত হয়েছিল তাই গঙ্গা জলের সাথে মিশে রয়েছে বিভিন্ন ঔষধি এবং গুল্ম।গঙ্গাজল তাই একজন রোগীর শরীরে রীতিমতো ম্যাজিকের মতো কাজ করে। গঙ্গা জলের মধ্যে ফোস নামে এমন একটি ব্যাকটেরিয়ার রয়েছে, যা সমস্ত দূষণকে নিমেষে গ্রাস করে ফেলে।

গোমুখ গুহা থেকে উৎপন্ন হয়ে গঙ্গা বঙ্গোপসাগরে গিয়ে মিশেছে। বিশাল এই যাত্রাপথে কোটি কোটি মানুষের জীবনের সঙ্গে মিশে গেছে গঙ্গা। বর্ষা ছাড়া অন্যান্য সময় একমাত্র গঙ্গা থেকে মানুষ জলের দিশা পায়। বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী গঙ্গা জলে এমন কিছু ঔষধি গুণ থাকে যা রোগ নিরাময় করতে পারে। গঙ্গার জল যদি আপনি পান করতে পারেন তাহলে আপনার হাঁপানি থেকে শুরু করে জ্বর, এমনকি বদহজমের মত রোগ সেরে যাবে নিমেষে। গঙ্গা জলে স্নান করলে তাতে থাকা খনিজ লবণ এবং ঔষধি গুন আপনার শরীরের সমস্ত রোগ দূর করে দেয়।