অভিষেক কেনো কমান্ডো কভারে? কঙ্গনার Y ক্যাটাগরি সুরক্ষা নিয়ে কথা উঠতেই টিএমসিকে প্রশ্ন বাবুলের

জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতকে সম্প্রতি হাইপ্রোফাইল  Y+ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সওয়াল করেছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। দেশের একজন অভিনেত্রীর জন্য নিরাপত্তাকর্মীদের ব্যস্ত রাখার ঘোর বিরোধী তিনি। তবে তৃণমূল সাংসদের বক্তব্যের পাল্টা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তিনিও তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি কমান্ডো কভারের ব্যবস্থা করা নিয়ে কটাক্ষ করলেন।

উল্লেখ্য, বলিউড “কুইন” কঙ্গনা রানাওয়াত সম্প্রতি শিবসেনার সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। এমনিতেই বি-টাউনের প্রতিবাদী কন্ঠ কঙ্গনা। বলিউডের বহু সেলেবের বিরুদ্ধে একাধিক বার সরব হয়েছেন। বিশেষ করে সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলা নিয়ে বলিউডের বিরুদ্ধে বারবার সরব হতে দেখা গেছে তাকে। সম্প্রতি, শিবসেনার সাথে রাজনৈতিক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। মুম্বাইকে “পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর” এর সাথে তুলনা করায়, অনেকেই তার প্রতি বিরক্ত হয়েছেন।

কঙ্গনা সম্প্রতি একটি টুইটে লিখেছিলেন, মুম্বাইয়ে থাকতে ভরসা পাচ্ছেন না তিনি। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদনও পাঠানো হয়। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কঙ্গনার জন্য ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের প্রশ্ন, দেশে যেখানে প্রতি লক্ষ মানুষের জন্য ১৩৮ জন পুলিশ কর্মী রয়েছেন, সেখানে একজন বলিউড অভিনেত্রীর জন্য হাইপ্রোফাইল নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করার যৌক্তিকতা কোথায়?

মহুয়া মৈত্রের এই যুক্তিকে সমর্থন করেছেন অনেকেই। তবে সম্প্রতি বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় তার বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বলেন, “কঙ্গনা কিছু অপ্রিয় সত্যি কথা বলে শিবসেনার রোষের মুখে পড়েছেন, তাই তার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা প্রয়োজন ছিল। তবে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও তো কমান্ডো কভারে মুড়ে রাখা হয়েছে, তার যৌক্তিকতা কোথায়?” পাশাপাশি তৃণমূলের প্রতি কটাক্ষ করে বাবুল সুপ্রিয়ের বক্তব্য, “সত্যি আড়াল করতেই, ভাইপোকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে রেখেছে তৃণমূল।”