বাংলার পুলিশ এত কেন ভয় পায়? প্রশ্ন করলেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আগামী ৬ ই এপ্রিল রাজ্যজুড়ে তৃতীয় দফার নির্বাচন শুরু হবে। তার আগেই রাজ্য পুলিশের পুলিশ কর্তাদের এক জেলা থেকে স্থানান্তরিত করে অন্য জায়গায় পোস্টিং দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের এই সিদ্ধান্তে বেজায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন তৃণমূল নেত্রী। পাশাপাশি রাজ্যের পুলিশকে সাহসও যুগিয়েছেন তিনি।

তৃণমূল নেত্রী এদিন রাজ্যের পুলিশকে সাহস দিতে গিয়ে বলেন, রাজ্য পুলিশ এত ভয় পায় কেন? তারা তো কেন্দ্রীয় সরকারের চাকরি করেন না। তারা রাজ্য সরকারের চাকরি করেন! অতএব তাদের ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। দুর্বল হয়ে পড়ারও কিছু নেই। প্রসঙ্গত বাংলার নির্বাচন চলাকালীন নির্বাচন কমিশন এবং কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর একাধিক অভিযোগ এনেছে তৃণমূল সরকার।

তৃণমূলের দাবি, কেন্দ্রীয় বাহিনী বাংলায় এসে ভোট প্রভাবিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। বিজেপির হয়ে কাজ করছে তারা। শুধু তাই নয়, ভিন রাজ্য থেকে পুলিশ রাজ্যে ঢোকানোর অভিযোগও তুলেছে তৃণমূল। তৃণমূল কংগ্রেস এও দাবি করেছে, ভিন রাজ্যের বিজেপি সমর্থকদের পুলিশের পোশাক পরিয়ে রাজ্যে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে!

তৃণমূল সুপ্রিমো কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর একাধিক অভিযোগ এনেছেন। তার অভিযোগ, বাংলায় কেন্দ্রীয় বাহিনী বিজেপির হয়ে ভোট প্রভাবিত করার কাজ করছে। এই বিষয়টি তিনি নির্বাচন কমিশনের গোচরেও আনেন। তৃণমূলের অভিযোগকে গুরুত্ব দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। যে কারণে তৃতীয় দফার নির্বাচন থেকে আর বুথের ভেতরে প্রবেশ করতে পারবে না কেন্দ্রীয় বাহিনীর সদস্যরা। পাশাপাশি ভোটারদের আইডি কার্ডও তারা দেখতে পারবেন না।