আস্ত ইলিশ বিক্রি হলো মাত্র ৭ হাজার টাকায়, বাজারে ব্যাপক শোরগোল

ইংলিশ মাছ বাঙালির প্রিয় মাছ এবং এই মাছের জন্য বাঙালিরা অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করে থাকে। কবে তারা সরষে দিয়ে বা বেগুন দিয়ে ইলিশ মাছ খাবে‌। পাতিপুকুর বাজার সহ অন্যান্য বাজারে এখন ইলিশ মাছের দাম এক থেকে দেড় হাজার টাকা। এরজন্য অনেক বাঙালি আছে যারা ইলিশ মাছ ছূতেও পারছেননা। এরমধ্যেই বাংলাদেশের রায়েন্দা বাজারে একটি ইলিশ মাছ বিক্রি হলো প্রতি কেজি সাড়ে তিন হাজার টাকায়। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সেই ইলিশ মাছ কেনার জন্য খদ্দেরের অভাব হলোনা।

বাংলাদেশের রায়েন্দা বাজারে ২ কেজি ৩০০ গ্রামের একটি ইলিশ মাছ বিক্রি হল সাত হাজার টাকায়। ইলিস মাছটি উদ্ধার করা হয়েছে বাংলাদেশের বাগেরহাট এর অন্তর্গত বলেশ্বর নদ থেকে। যে মৎস্যজীবী মাছটি উদ্ধার করেছেন তার নাম হলো এমাদুল শেখ। ইমাদুল শেখের মতে, এরকম বড় ইলিশ সচরাচর পাওয়া যায়না। অনেকদিন পর এত বড় ইলিশ পাওয়া গেল সমুদ্রতলে। লকডাউন এর জেরে অনেক মৎস্যজীবীর অনেক ক্ষতি হয়েছে।

সেই সময় তারা সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে পারেনি, তাদের সেই দিনগুলি খুবই কষ্টে কেটেছে। এছাড়াও বিগত ৬৫ দিন ধরে বাংলাদেশের ঝড়ের কারণে সমুদ্র দিকে যাওয়া বারণ ছিল মৎস্যজীবিদের।এর জন্য যথেষ্ট ক্ষয়ক্ষতি তাদের। অনেকদিন পর তারা এরকম একটি বড় ইলিশ সমুদ্র থেকে উদ্ধার করেছে এবং বাজারের দাম রেখেছিল সাড়ে তিন হাজার টাকা। দাম বেশি হওয়া সত্ত্বেও ইলিশ মাছ খদ্দেরদের মধ্যে যথেষ্ট চাহিদা তৈরি করেছিল এবং খুব অল্পসময়ের মধ্যেই ২কেজি ৩০০ গ্রামের ইলিশ মাছটি বিক্রি হয়ে যায়। ইলিশ মাছ বিক্রি করে মৎসজীবীরা খুবই খুশি হয়েছেন এবং তারা অনেকদিন পর যোগ্য মূল্য পেয়েছে।