তৃণমূলের ব্যাটন কার হাতে থাকবে! মমতা না অভিষেক? জবাব দিলেন পিকে

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে যারা তৃণমূল দল ত্যাগ করে বিরোধী বিজেপি শিবিরে নাম লিখিয়েছেন তাদের প্রত্যেককেরই মুখে শোনা গিয়েছে একটাই কথা। দলে থেকে কাজ করতে পারছিলেন না, কারণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল দলের সকল সিদ্ধান্ত আজকাল প্রশান্ত কিশোর এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিচ্ছেন। তাদের নিজস্ব কাজ করার পরিসর নেই।

এমনই অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল তৃণমূল থেকে বিজেপিগামী শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং সুব্রত বক্সী যতদিন দলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ততদিন সব ঠিক ছিল। প্রশান্ত কিশোরের আগমন এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের খবরদারি তার ভাল লাগেনি।

শুভেন্দু ছাড়াও এই একই অভিযোগ তুলেছিলেন মিহির গোস্বামী, শীলভদ্র দত্তসহ আরো অনেকে। তবে একুশের নির্বাচনী প্রচার শুরু হতেই সামনে এলো অন্য তথ্য। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া থেকে শুরু করে রাজ্যজুড়ে ভোটের প্রচার চালানোর ক্ষেত্রে তৃণমূলের তরফে একটাই মুখ দেখা যাচ্ছে বারবার। সেটা হল তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ সম্পর্কে বিবৃতি দিলেন খোদ প্রশান্ত কিশোর। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে তিনি নিজেই জানালেন, বাংলায় তৃণমূল দলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই শেষ কথা। তিনি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। অভিষেক কিংবা প্রশান্ত কিশোর নয়।