মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন? কোনো মন্তব্য করতে না বললো বিজেপি, থাকতে পারে বড়ো চমক

সামনেই একুশে বিধানসভা নির্বাচন সেই কারণেই একেবারে তোর জোরে নেমেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। কিন্তু তার থেকেও বেশি যেটা নিয়ে মানুষের মাথা ব্যথা, সেটা হলো যদি বিজেপি সরকারে বসতে পারে তাহলে তাদের তরফ থেকে মুখ্যমন্ত্রী হবে কে? এই কথা এখন সবার মুখে মুখে। প্রথম দিকে এই ধরণের প্রশ্ন উত্তর পর্ব চললেও এখন সেটা যেন বাঁধ ভেঙেছে। তাই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে যদি বিজেপির আগামী মুখ্যমন্ত্রী নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো চর্চা করা হয় তাহলে তাকে শোকজ করা হবে।

অবশ্য এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত সহ কলকাতায় সফরে এসে বলেছিলেন, বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হবে বাংলার ভূমি পুত্র। আর সেই কথা শোনার পরেই জল্পনা একেবারে তুঙ্গে।বিশেষ করে গত কয়েকদিন আগে সৌমিত্র খাঁ যখন আগামী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দিলীপ ঘোষের নাম উল্লেখ করেছিলেন তখন বিতর্ক আরো বেশি বৃদ্ধি পেয়েছিল। তাই এবার কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও শিবপ্রকাশেরা জানিয়েছেন এই নিয়ে বাংলা বিজেপিতে যদি ফের প্রশ্ন ওঠে তাহলে অমিত শাহের পথেই হাঁটতে হবে। এর সাথে তারা আরও জানিয়েছেন এই ধরনের কথা আর বরদাশ্ত করা হবে না।

এখানে শেষ নয় দলীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেছেন, কে মুখ্যমন্ত্রী হবে সেটা ভাবতে হবে না। নিজের কাজ করুন , দায়িত্ব জ্ঞানহীনের মতো কাজ করবেন না। তা না হলে শোকজ করা হবে। এদিকে শিবপ্রকাশ জানিয়েছেন, সবার প্রথমে জিততে হবে তারপরে বিধায়কদের সাথে কথাবার্তা বলে কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নেবে। তাই আপনাদের সেটা ভাবতে হবে না নিজের কাজ করুন।