যেখানে ভোট পাবো না, কিছুই দেওয়া হবে না, রীতিমতো “হুমকি” প্রাক্তণ মন্ত্রী তপন দাসগুপ্তর

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনী লড়াইয়ে সপ্তগ্রাম বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন তপন দাশগুপ্ত। তৃণমূলের চুড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পরপরই প্রচার অভিযানে নেমে পড়েছেন তিনি। তবে একুশের লড়াইয়ে জিততে মরিয়া তৃণমূলের এই প্রার্থী কিন্তু প্রথম দিনের প্রচারেই আমজনতাকে রীতিমতো শাসিয়ে দিলেন!

প্রাক্তন কৃষি বিপণন মন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন এই লড়াইয়ে যারা তাকে ভোট দেবেন না তাদের জলের লাইন, বিদ্যুতের লাইনও কাটা যাবে! তার স্পষ্ট হুঁশিয়ারি’, যে বুথে তার হয়ে ভোট পড়বে না, সেই বুথের সমস্ত লাইন এবং জলের লাইনও কাটা যাবে। ভোটের আগে এমনই লাগামছাড়া এবং বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন তৃণমূল প্রার্থী তপন দাশগুপ্ত।

শনিবার বিশালক্ষী মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রচার শুরু করতে গিয়েই ভোটারদের রীতিমতো শাসিয়ে দিয়েছেন এই তৃণমূল নেতা। প্রসঙ্গত, প্রার্থী তালিকা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফাঁকে বহু প্রাক্তণীকে চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ দিলেও সপ্তগ্রাম বিধানসভায় গত দু’বারের বিধায়ক তপন দাশগুপ্তকেই প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

দায়িত্ব পেয়ে শনিবার পোলবা দাদপুর ব্লকের গোসাই মালিপাড়া থেকে ভোটের প্রচার শুরু করেন তপন দাশগুপ্ত। সেখানেই ভোটারদের রীতিমতো হুমকি দিয়ে তিনি বলেন, “ভোট না পড়লে বুথ দেখবো, জলের লাইন যাবে না, বিদ্যুতের লাইন বন্ধ হয়ে যাবে! তখন সবটাই বিজেপিকে দিয়েই করাতে হবে।” উল্লেখ্য এই প্রথম নয়। তৃণমূলের এই প্রার্থী ইতিপূর্বেও বহুবার আম জনতাকে হুমকি দিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন। তার এই মন্তব্যের জেরে রাজনৈতিক মহলে জোর গুঞ্জন শুরু হয়েছে।