কলকাতার জন্য খা’রা’প খবর! গঙ্গার জলস্তর বা’ড়’তে পা’রে প্রা’য় ১৪ ফুটের উপরে

বুধবার বিকেলের পর থেকে কলকাতাজুড়ে বৃষ্টিপাত শুরু হওয়া মাত্রই ফের জলমগ্ন কলকাতার রাস্তাঘাট। উত্তর কলকাতার ঠনঠনিয়া থেকে শুরু করে রাসবিহারী, লেক গার্ডেন্স, কালাঘাটের নানান এলাকা এখনো পর্যন্ত জলের তলায় রয়েছে। এদিকে আবার আজ বিকেলের দিকে গঙ্গায় জোয়ার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যে কারণে নদীর জলস্তর বাড়লে পরিস্থিতি আরও কঠিন হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা প্রশাসনের।

একদিকে জোয়ার অপর দিকে বৃষ্টি, উভয়ের চাপে কলকাতার রাস্তার অবস্থা বেহাল হওয়ার পর্যায়ে পৌঁছেছে। কলকাতা পুরসভার আশঙ্কা, সন্ধ্যের দিকে জোয়ার হলে গঙ্গার জলস্তর ১৪ ফুটেরও বেশি হতে পারে! যার ফলে আবার কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে তাই কলকাতার লকগেটগুলিকে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

বর্তমানে চাঁদপাল ঘাটের কাছে লকগেট খুলে দেওয়া হয়েছে। কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর সদস্য তারক সিং বর্তমানে পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন। কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় আজ সারাদিনে ভারী বর্ষণের সতর্কবার্তার কথা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। এই কারণে বিকেল চারটে থেকে রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত বন্ধ লক গেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জোয়ার এলে গঙ্গার জল স্তর ১৪ ফুট থেকে ১৬ ফুটের মতো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তার উপর আবার ভারী বর্ষণে কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকা জলের তলায় ডুবে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। গতকাল রাত বারোটা থেকে সকাল ছয়টা পর্যন্ত কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকায় রেকর্ড বৃষ্টি হয়েছে। আজ সারাদিনে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় ভারী বর্ষণের সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে।