বুথে বিরোধী এজেন্টদের থাকতে দেবো না, কেন্দ্রীয় বাহিনী আমরাই, টিএমসি নেতার ভিডিও ভাইরাল

ফাইল ছবি

পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি এখন নির্বাচন উপলক্ষে বেশ সরগরম। নির্বাচনের রাজনীতি মানেই চ্যালেঞ্জের পাল্টা চ্যালেঞ্জ, স্লোগানের পাল্টা স্লোগানে ভরে ওঠে রাজনৈতিক মহল। বিশেষত চলতি দফার নির্বাচনে রাজ্য শাসক শিবিরের সদস্যদের মুখে লাগাম ছাড়া স্লোগান শোনা যাচ্ছে। রাজ্য শাসকদলের “খেলা হবে” স্লোগানে মেতে উঠেছে সারাবাংলা। এবার তৃণমূলীয় এক নেতার মুখেই শোনা গেল বিতর্কিত মন্তব্য।

চোপড়া কেন্দ্রের তৃণমূল নেতা এক্রামুল হকের বিতর্কিত মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। তিনি চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন, মাঝিনি গ্রাম পঞ্চায়েতের একটি বুথেও বিরোধীদের এজেন্ট থাকবে না! বিরোধীদের পোলিং এজেন্টে ভোটকেন্দ্রে থাকতে দেওয়া হবে না। এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চোপড়া কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী এক্রামুল হক।

শুধু তাই নয়, তিনি প্রকাশ্যেই হুমকি দিয়েছেন তৃণমূল নেতারা যেভাবে বলবেন, সেভাবেই ভোট পড়বে। তার অন্যথা হবে না। তিনি এও বলেছেন, নিজেদের বুথে তারা নিজেরাই কেন্দ্রীয় বাহিনী হিসেবে থাকবেন। কেন্দ্রের পাঠানো বাহিনী কিংবা মিলিটারি ফোর্সের প্রয়োজন নেই! তার এই বক্তব্য ভিডিও মারফত ক্যামেরাবন্দি হয়ে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল সাইটে বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

নির্বাচন পূর্বে রাজ্য শাসকদলের নেতাকর্মীদের মুখে এমন বক্তব্যকে কেন্দ্র করে বিতর্কের ঝড় উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। বিতর্ক সামাল দিতে তার সাফাই, নিজের বক্তব্য মারফত ভয় দেখাতে অথবা ধমক দিতে চাননি তিনি। ১১টি বুথে তৃণমূলের কোনো বিরোধীই নেই। ভোট কেন্দ্র বিরোধী-শূন্য রাখা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি আসলে ওই এগারোটি বিরোধী-শূন্য কেন্দ্রের কথাই বোঝাতে চেয়েছিলেন!