পাত্রীকে মঙ্গলসূত্র পড়িয়ে ভিডিও কলেই বিয়ে নেপথ্যে লকডাউন

পাত্রীকে মঙ্গলসূত্র পড়িয়ে ভিডিও কলেই বিয়ে নেপথ্যে লকডাউন

গোটা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্ক। ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলছে, বাড়ছে মৃত্যু। করোনা মোকাবিলার জন্য গোটা দেশ জুড়ে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। লকডাউনের জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান। অনেকেই বিয়ে পিছিয়ে দিচ্ছেন, অনেকেই আবার মন্দিরে গিয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনেই বিয়ে করছেন। বর-কনে পাশাপাশি থাকলে এটা সম্ভব, কিন্তু পাত্র-পাত্রী যদি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকেন, সেক্ষেত্রে সম্ভব নয়। কিন্তু কেরলের এক যুবক লকডাউনের মধ্যেই বিয়ে সেরে ফেললেন, তবুও আবার ভিডিও কলের মাধ্যমে।

কেরলের কোট্টায়নে রয়েছেন সৃজিৎ নাদেসান এবং লখনউয়ে আটকে পড়েন কনে অঞ্জনা এবং তাঁর মা ও ভাই। তাঁরা ভেবেছিলেন লকডাউন কাটলে কেরলে যাবেন। কিন্তু ১৪ এপ্রিলের পর দেশের পরিস্থিতি দেখে বাড়িয়ে দেওয়া হয় লকডাউন। ফলে কেরলে আসতে পারেননি তাঁরা। কিন্তু লকডাউনের জেরে তো আর শুভদিন আটকে থাকবে না। পণ্ডিতরা জানিয়েছিলেন, এই বিয়ের দিন একবার যদি চলে যায়, আগামী ২ বছরে কোনও শুভদিন নেই। তাই কোনো উপায় না দেখে ভিডিও কলেই হয় বিয়ে। অঞ্জনা বলেছেন, তিনি ১৮ এপ্রিল কেরলে যাওয়ার জন্য বিমানে টিকিট বুক করেছিলেন। কিন্তু লকডাউনের কারণে ফ্লাইট পরিষেবা স্থগিত হয়ে যায়। এদিকে পরিবারের লোকেরাও এই শুভ দিনের সুযোগ লকডাউনের কারণে হেলায় হারাতে চাইছিল না।

তাই অনলাইন বিয়ের সিদ্ধান্ত হয়। পাত্রপক্ষও কোনো আপত্তি করেনি। দুই বাড়ির মত নিয়েই অনলাইনে বিয়ের আয়োজন করা হয়। সমস্ত আচার বিধি মেনেই সম্পন্ন হয় তাঁদের বিয়ে। ভিডিও কলেই নববধূকে মঙ্গলসূত্র পরান নাদেসান। নবদম্পতি জানিয়েছেন, লকডাউনের মধ্যে সমস্ত যানবাহন বন্ধ। তাই একে অপরের কাছে যাওয়া অসম্ভব। অনুষ্ঠান করাও সম্ভব নয়। লকডাউন কাটলে পরিবার এবং বন্ধুদের ডেকে রিসেপশন পার্টি দেবেন তাঁরা।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন