করা যা’বে নানা আবেদন! এবার আ’স’ছে “দুয়ারে পুলিশ”

“দুয়ারে পুলিশ” কর্মসূচি এবার জেলায় জেলায় শুরু হলো। প্রথম দিনেই প্রচুর নালিশ এবং আবেদন জমা পড়েছে ভাতারের মাহাতা এলাকার দুধ বাগান এবং আয়ুস গ্রামের কালিকাপুরে। শনিবার জেলা ভাতার থানার উদ্যোগে এই শিবির করা হয়। এই এলাকার অনেকেই আসে নানান সমস্যা নিয়ে। কেউ আসে জমি সংক্রান্ত নথি সংক্রান্তঃ সমস্যা নিয়ে কেউ পারিবারিক সমস্যা নিয়ে কেউ আবার জরুরি নথিপত্র হারিয়ে গেছে সেই সমস্যা নিয়ে।

এই শিবিরে উপস্থিত ছিলেন জেলার ডিএসপি এবং ভাতার থানার ওসি। জেলার ডিএসপি জানান যে ভাতার থানা থেকে অনেকটা দূরে মাহাতা দুধ বাগান এলাকা, সেইজন্য ওখানকার অনেক মানুষই আসতে পারে না থানায় তাদের অভিযোগ নিয়ে। এই জন্যই ওই এলাকাতে শিবির করা হয়েছে। অন্যদিকে জঙ্গলঘেরা কালিকাপুরের নিকটবতী ফাঁড়ির দূরত্ব প্রায় ১৪ কিলোমিটারের কাছাকাছি। সেখানেও “দুয়ারে পুলিশ” কর্মসূচি করা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর পাওয়া গেছে, সেখানে সংসার সংক্রান্ত নানা অভিযোগ নিয়ে আসে ওই এলাকার অনেক মহিলা। তাদের অভিযোগ যে, তাদের মারধর করে স্বামী। এছাড়াও অনেক সমস্যা জানিয়েছেন অনেকে, যেমন আধার কার্ড, রেশন কার্ড হারিয়ে যাওয়ার সমস্যা। পুলিশের তরফ থেকে সমস্ত অভিযোগকারীদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে সমস্ত সমস্যা সমাধানের।

এই শিবির থেকে মানুষদের সচেতন করা হয়েছে বাল্যবিবাহ রোধ, নারী সুরক্ষা, বয়স্কদের সামাজিক নিরাপত্তা, মাদক দ্রব্য বর্জন ইত্যাদি প্রসঙ্গে। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কল্যাণ সিংহ রায় বলেছেন যে, এ অভিযোগগুলি পুলিশের কাছে জমা পড়েছে সেগুলির সঠিক তথ্য লিপিবদ্ধ করা হবে এবং তার পরে সেগুলো সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।