শিরোনামে ত্রিপুরা প্রশাসন, ক’রোনা চিকিৎসায় গাফিলতি আটকাতে হাসপাতালেই থাকবেন রাজ্যের মন্ত্রীরা

এবার করোনা চিকিৎসায় যেনো কোনো ধরনের গাফিলতি না হয়, এই কারণেই এবার ত্রিপুরার ক্যাবিনেট মিনিস্টাররা থাকবে। এমন অনেক জায়গায় শোনা যাচ্ছিল করোনা চিকিৎসার গাফিলতির জন্য প্রাণ হারাচ্ছিল রোগীরা। এবার সেটা যেনো না হয়, সেই কারণেই এবার ত্রিপুরার ক্যাবিনেট মিনিস্টারেরা থাকবে হাসপাতালে। এটি আসলে একেবারে নতুন ধরনের একটি উদ্যোগ, যেটা সারা বিশ্বে কয়েকটি আছে বলুন? ত্রিপুরার গোবিন্দ বল্লভ হাসপাতালে দরকার পরলে থাকবে ক্যাবিনেট মিনিস্টারেরা।

এই নিয়ে আইন মন্ত্রী রতন লাল জানিয়েছেন, আসলে দেখা যাচ্ছে করোনা হাসপাতালে করোনা রোগীর মৃত্যু হচ্ছে। এই মৃত্যু এখন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই এবার কোনোভাবেই যেনো গাফিলতির জন্য মারা না যায় রোগীরা সেটার কারণেই দফায় দফায় হাসপাতালে থাকবে ক্যাবিনেট মিনিস্টারেরা। এই গাফিলতির কারণে দেখা যাচ্ছে শিশুমৃত্যুও হয়েছে। আর সেটাই আরও চিন্তার বিষয়।

এদিকে বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক ও স্বাস্থ্য মন্ত্রী সুদীপ বর্মন জানিয়েছেন, আসলে রাজ্য প্রশাসন কোনোভাবেই করোনা রুখতে সক্ষম নয়। ইতিমধ্যে ত্রিপুরাতে মারা গেছে করোনায় ১৩৪ জন। যার মধ্যে দুই জন আত্মহত্যা পর্যন্ত করেছে। তাই এবার এমন ধরনের প্রথম সিদ্ধান্ত।।