“এক চড়ে দাঁত ফেলে দেবো”, বিজেপি করায় বাড়িতে এসে হুমকি তৃণমূল বিধায়কের, ভিডিও ভাইরাল

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে বিজেপি এবং তৃণমূলের সংঘাত প্রায়শই প্রকাশ্যে আসছে। ভোটের প্রচারের অঙ্গ হিসেবে ভোট মঞ্চে দাঁড়িয়ে উভয় তরফের নেতা-নেত্রীরা একে অন্যের প্রতি রীতিমতো আক্রমণ চালাচ্ছেন। এরই মাঝে আবার বিজেপি এবং তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে কলহ বাঁধলো! উভয় তরফের কথা কাটাকাটি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে মধ্যমগ্রামের তৃণমূল বিধায়ক ও পৌরসভার প্রশাসক রথীন ঘোষকে প্রকাশ্যে এক বিজেপি কর্মীকে হুমকি দিতে শোনা গেল।

এমনই একটি ভিডিও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এই ভিডিওটিতে মধ্যমগ্রামের তৃণমূল বিধায়ক ও পৌরসভার প্রশাসক রথীন ঘোষ এবং তার দলবলকে এক বিজেপি নেতাকে হুমকি দিতে শোনা গিয়েছে। “এক চড়ে দাঁত ফেলে দেবো!”, বিজেপি নেতার প্রতি এমনই হুমকি দিয়েছেন রথীন ঘোষ। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যমগ্রামের পৌরসভার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের মাইকেল নগরে।

তৃণমূলের স্থানীয় কো-অর্ডিনেটর ও পৌরসভার প্রশাসক রথীন ঘোষ তাঁর অনুগামীরা ঐদিন ওই বিজেপি নেতার উপর চড়াও হয়ে ছিলেন। ওই বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে তাদের অভিযোগ ছিল, তিনি তৃণমূল বিধায়কের ঘনিষ্ঠদের গালিগালাজ করেছেন। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ দিন বিজেপির নেতাকেই রাস্তাতেই হুমকি এবং শাসানি দিয়ে যান তারা। তবে হুমকির অভিযোগ অবশ্য সরাসরি অস্বীকার করছেন রথীন ঘোষ।

রথীন ঘোষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ওই ব্যক্তির সঙ্গে তার প্রতিবেশীর বেশ কিছুদিন ধরেই বিবাদ চলছিল। ওই বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে তার প্রতিবেশী পৌরসভায় নালিশ জানিয়ে গিয়েছেন। তাই ওই দিন তার বাড়িতে কথা বলতে গিয়েছিলেন তারা। কোনোভাবেই হুমকি বা শাসানি দেওয়া হয়নি। এর পেছনে কোনো রাজনৈতিক কারণ নেই বলেই জানিয়েছে তৃণমূল। তবে বিজেপি কর্মীরা অবশ্য সেই দাবি মানতে নারাজ। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওই দিন রাতেই এয়ারপোর্ট থানায় অভিযোগ দায়ের করে বিজেপি।