আগামীকাল দ্বিতীয় দফার ভোট, এদিন থেকেই রেকর্ড হারে কমছে রান্নার গ্যাসের দাম!

অবশেষে মিলল স্বস্তি। বিগত প্রায় কয়েক মাসে রান্নার গ্যাসের দাম যে হারে বেড়েছে তাতে সিলিন্ডারে হাত দিতেই যেন ভয় পাচ্ছেন মধ্যবিত্তরা। বিগত কয়েক মাসের ব্যবধানেই প্রায় ৪০০ টাকার কাছাকাছি দাম বেড়েছে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের। যার জেরে সাধারণের ক্ষোভ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত বাড়ছে। অবশেষে পশ্চিমবঙ্গের ভোটের মুখে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কিছুটা হলেও কমলো।

সম্প্রতি ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশনের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ১০ টাকা কমানো হলো। অর্থাৎ আগামী বৃহস্পতিবার থেকে যারা গ্যাসের সিলিন্ডার কিনবেন তাদের বর্তমান মূল্যের তুলনায় দশ টাকা কম দিতে হবে। এতে অবশ্য সিন্ধুতে বিন্দু পরিমাণ দাম কমেছে। তবে সংশ্লিষ্ট সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে আগামী দিনে এই দাম আরও কমবে।

প্রসঙ্গত, করোনা অতিমারি সময়কালেই রান্নার গ্যাসের দাম উত্তোরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। যে কারণে চরম অর্থনৈতিক অবনমনের মধ্যে গ্যাসের দাম মেটাতে হিমসিম খাচ্ছেন মধ্যবিত্ত। রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম হাজার টাকা ছুঁই ছুঁই। অথচ সরকারের তরফ থেকে ভর্তুকির টাকা ক্রমাগত কমেছে বৈ বাড়েনি। কেউ কেউ নামমাত্র ভর্তুকি পাচ্ছেন। কারোর আবার সেটুকুও জুটছে না।।

তবে বিগত কয়েকদিনে কিছু সময়ের ব্যবধানে যে হারে এক মাসের মধ্যে বারংবার সিলিন্ডারের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে তাতে সাধারণের মনে রীতিমতো আতঙ্ক দানা বেঁধেছে। তবে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কিছুটা কমার কারণে পরিস্থিতি ক্রমে নিয়ন্ত্রণে আসবে বলেই আশা দেখাচ্ছে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন।